‘তোদের দেশে চলে যা’: নিউজিল্যান্ডের রাস্তায় অপদস্থ হিজাবী দুই বোন

|

শুক্রবারের ভয়াবহ হামলায় নিহত ৫০ জন মুসলিমের পরিবার ও স্বজনকে সান্তনা দিতে যখন ব্যস্ত নিউজিল্যান্ডবাসী, তখনই মুসলিমদের প্রতি ঘৃণা প্রকাশে আরেকটি ঘটনা ঘটলো দেশটির অন্যতম শহর অকল্যান্ডে। ঘটনাটি ছোটো হলেও একে গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছে কর্তৃপক্ষ।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড জানিয়েছে, অকল্যান্ডের এক রেলস্টেশনে দাঁড়িয়েছিলেন হিজাব পরিচিত মুসলিম দুই বোন। তখন এক মধ্যবয়সী ব্যক্তি তাদের দিকে এগিয়ে এসে নোংরা ভাষায় আক্রমাণাত্মক কথা বলা শুরু করে। এক পর্যায়ে ওই লোক বলে, ‘তোরা তোদের দেশে চলে যা’।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডকে নিজেদের অপদস্থ হওয়ার ঘটনাটি জানিয়েছেন তারা। এমন ঘটনায় ২১ বছর বয়সী বড় বোন ইকরা ঘটনার আকস্মিকতায় মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন। পত্রিকাটি লিখেছে, তাদের প্রতিবেদকের সাথে কথা বলার সময় তার কণ্ঠ কাঁপছিল।

ইকরা বলেন, আমরা তখন স্টেশনে দাঁড়িয়েছিলাম। তখন এক লোক, যার হাতে একটি মদের বোতল ছিল, আমাদের দিকে এগিয়ে এসে নোংরা ভাষায় কথা বলা শুরু করে। পাশে তখন নন-মুসলিম একজন তরুণীও ছিলেন। তিনি আমাদের সাথে এমন বাজে আচরণ দেখে কেঁদে ফেলেছিলেন। ঘটনাটি আমাদেরকে খুবই আঘাত করেছে।’

ইকরা পুলিশকে ঘটনাটি জানিয়েছেন। পুলিশ অভিযুক্তকে চিনতে পেরেছে এবং তার বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নিয়েছে।

এই তরুণী আরও জানান, তাদের পরিবারের লোকজন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আমরা মেয়েরা বাইরে যাওয়ার সময় এখন হিজাব ব্যবহার করবো না। এমন একটা বিষয়ে আমাদেরকে আলোচনা করতে হয়েছে- যা আমাদের জন্য খুবই দুঃখজনক।









Leave a reply