‘কারো বাহবা পাওয়ার জন্য সন্ত্রাসীদের হাতে রক্তাক্ত হয়ে আন্দোলন করিনি’

|

ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুলহক নুর বলেছেন, কারো বাহাবা কিংবা প্রশংসা পাওয়ার জন্য সন্ত্রাসীদের হাতে বার বার রক্তাক্ত হয়েও কোটা সংস্কার, প্রশ্নফাঁস নিয়ে আন্দোলন কিংবা ডাকসু নির্বাচন করিনি। নৈতিকতা,দেশপ্রেম ও সচেতনতার জায়গা থেকেই বার বার নির্যাতিত হয়ে ও সাধারণ শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ে রাজপথে আন্দোলন-সংগ্রাম করেছি।’

আজ রাতে নিজের ফেসবুক একাউন্টে এক পোস্টে তিনি এ কথা বলেন। নিচে তার পোস্টটি তুলে ধরা হলো–

“কারো বাহাবা কিংবা প্রশংসা পাওয়ার জন্য সন্ত্রাসীদের হাতে বার বার রক্তাক্ত হয়েও কোটা সংস্কার, প্রশ্নফাঁস নিয়ে আন্দোলন কিংবা ডাকসু নির্বাচন করিনি। নৈতিকতা,দেশপ্রেম ও সচেতনতার জায়গা থেকেই বার বার নির্যাতিত হয়ে ও সাধারণ শিক্ষার্থীদের অধিকার আদায়ে রাজপথে আন্দোলন-সংগ্রাম করেছি।
সাধারণ ছাত্র তথা এদেশের মানুষের যৌক্তিক ও ন্যায়সঙ্গত দাবি / অধিকার আদায়ে ভবিষৎতে ও নিজের জায়গা থেকে সোচ্চার থাকবো।
নুর কিংবা অন্য কেউ কি করেছে বা করবে সেটা বাদ দিয়ে নিজের জায়গা থেকে কি করতে পেরেছেন, করবেন সেটা আগে ভাবুন।
১৮ কোটি মানুষের মধ্যে ১ কোটি মানুষ অর্থাৎ প্রতি ১৮ জনে ১ জন করে সচেতন ও দেশপ্রেমিক প্রতিবাদী মানুষ থাকলে ও দেশের আজকের এই অবস্থা দেখতে হতো না।
আকাশ থেকে ফেরেশতা কিংবা পাতাল থেকে পরী এসে সমাজ-রাষ্ট্রের এ অন্যায়-অনিয়ম, বৈষম্য দূর করবে না, অধিকার আদায়ে নিজেদেরই সচেতন হতে হবে, লড়াই-সংগ্রাম করতে হবে।
শুধু অন্যের দোষ-ত্রুটি না খুঁজে, আগে নিজের দায়িত্ব-কর্তব্য সম্পর্কে সচেতন হোন, দায়িত্বশীল হোন,অন্যকে ও তাদের দায়িত্ব-কর্তব্য সম্পর্কে সচেতন করুন। সমাজ-রাষ্ট্রে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে।”









Leave a reply