নদ্দায় আন্দোলনকারীদের সাথে ভিপি নুরের সংহতি

|

রাজধানীর নর্দ্দায় প্রগতি সরণিতে বাসচাপায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী নিহতের ঘটনায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সংহতি জানিয়েছেন ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি মো. নুরুল হক নুর। মঙ্গলবার বিকেল ৫ টার কিছু আগে নুর শিক্ষার্থীদের সাথে গিয়ে সংহতি প্রকাশ করে আসেন। এসময়, আন্দোলনে আঘাত করা হলে ‘দাঁত ভাঙা’ জবাব দেওয়ার কথাও বলেন নুর।

নুর বলেন, এই আন্দোলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রসমাজ একাত্মতা প্রকাশ করেছে। তবে ছাত্রসমাজকে সচেতন থাকতে হবে। শান্তিপূর্ণ আন্দোলন বানচালে বিভিন্ন মহল ষড়যন্ত্র শুরু করেছে।

এর আগে কোটা সংস্কার আন্দোলন, নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে হামলার কথা উল্লেখ করে নুর বলেন, শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে আঘাত করা হলে ছাত্রসমাজ দাঁতভাঙা জবাব দেবে।

এ সময় নুরের সঙ্গে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা রাশেদ খান, ফারুক হোসেন, ডাকসুর নবনির্বাচিত সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেনসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

মঙ্গলবার, সকাল সোয়া ৭টার দিকে রাজধানীর নর্দ্দায় বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার গেইটের সামনে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অফ প্রফেশনালস-বিইউপি’র বাসে উঠার সময় প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরীকে সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাস চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এরপর তার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ এলাকাবাসী রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকে। একপর্যায়ে তাদের সঙ্গে বেসরকারি নর্থ সাউথ ও ইনডিপেনডেন্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও যোগ দেন। এতে বিমানবন্দর-বিশ্বরোড, বাড্ডা-রামপুরা এবং গুলিস্তান রুটের সকল যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে বেলা ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে যান ঢাকা উত্তরের নবনির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম। এ সময় তিনি শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন দাবি-দাওয়া দ্রুততম সময়ের মধ্যে মেনে নেয়ার আশ্বাস দেন। শিক্ষার্থীদের দেয়া ৮ দফা দাবির মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল- ১০ দিনের মধ্যে সুপ্রভাত বাসের চালক, হেলপার ও মালিকের ফাঁসি; সুপ্রভাত ও জাবালে নূরসহ যেসব বাস আজ ও এর আগে দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে, সেসব বাসের রুট পারমিট বাতিল; চালক ও হেলপারের ডোপ টেস্ট; বাসসহ গণপরিবহনের চালক-হেলপারের আইডি কার্ড ভিজিবল করা; নিহত আবরারের নামে বসুন্ধরা আবাসিক/যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে জেব্রা ক্রসিংসহ ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ। তবে, মেয়রের সাথে আলোচনা হলেও দাবি আদায় না করে রাস্তা ছাড়েনি শিক্ষার্থীরা।

ইতিমধ্যেই, আটক করা হয়েছে বাসচালককে। বাসটিকেও জব্দ করা হয়েছে। নিহত আবরার বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালে (বিইউপি) আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র। তিনি নিরাপদ সড়ক চায় আন্দোলনে যুক্ত ছিলেন।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply