ট্রাকের চাপায় শিশু শিক্ষার্থীর মৃত্যু, চুয়াডাঙ্গা-যশোর সড়ক অবরোধ

|

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

চুয়াডাঙ্গায় বেপরোয়া ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে জুঁই নামে এক শিশু শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার বিকালে চুয়াডাঙ্গা-যশোর সড়কের মনোহরপুর নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত জুঁই স্থানীয় মনোহরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণির ছাত্রী ছিলো।

দুর্ঘটনার পর পরই বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী রাস্তায় নেমে আসেন। এ সময় তারা গাছ ফেলে ব্যারিকেড দিয়ে চুয়াডাঙ্গা-যশোর সড়ক বন্ধ করে দেন। এতে ওই সড়কে সব ধরণের যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকালে কোচিং শেষে বাড়ি ফিরছিলো শিশু জুঁই। বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছালে জীবননগর থেকে চুয়াডাঙ্গামুখি দ্রুতগামী একটি ট্রাক তাকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয় ওই শিক্ষার্থী। ট্রাক চালক গাড়ি নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়।

দূর্ঘটনার পর বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী রাস্তায় নেমে আসেন। এ সময় তারা সড়কের উপর গাছের গুড়ি ফেলে অবরোধ সৃষ্টি করেন। খবর পেয়ে জীবননগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করতে গেলে লোকজন আরও বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন। পরে পুলিশের সিনিয়র কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে বিচারের আশ্বাস দিলে দেড় ঘণ্টা পর ব্যারিকেড তুলে নেন এলাকাবাসী।

প্রত্যক্ষদর্শী খায়রুল ইসলাম জানান, বইপত্র নিয়ে সড়কের একেবারে পাশ দিয়ে হাঁটছিলো জুঁই। কিন্তু দ্রুতগামী ট্রাকটি বেপরোয়া গতিতে এসে পেছন দিক থেকে তাকে ধাক্কা দিয়ে পিষে ফেলে।

জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ গনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত। সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। ঘাতক ট্রাকের চালককে গ্রেফতারে অভিযান চালানো হচ্ছে।

যমুনা অনলাইন/কিএস









Leave a reply