সুবর্ণচরের ধর্ষকের আইনজীবীর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল

|

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গণধর্ষণের মামলার প্রধান আসামি মো. রুহুল আমিনের আইনজীবী আশেক-ই-রসুলের বিরুদ্ধে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। আজ (বুধবার) বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি এস এম কুদ্দুস জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। তথ্য গোপন ও আদালতকে বিভ্রান্ত করায় তার বিরুদ্ধে এ রুল জারি হয়।

রুলে আইনজীবী আশেক-ই-রসুলের বিরুদ্ধে কেন আদালত অবমাননার শাস্তি দেওয়া হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে। অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন। গত ২৫ মার্চ ধর্ষণের মামলার মূল আসামি রুহুল আমিনকে ‘প্রতারণার মাধ্যমে’ জামিন নিয়ে দেয়া আইনজীবীর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ।

সেদিন রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আদালতে মৌখিক আবেদন করেন। এর পর আদালত রুহুল আমিনের আইনজীবীকে হাজির হতে বললে এ সময় আইনজীবীর জুনিয়র আদালতকে জানান, আইনজীবী আশেক-ই রসুল দেশের বাইরে আছেন। এর পর আদালত শুনানির জন্য ২৭ মার্চ দিন ধার্য করেন। এর আগে গত ২৩ মার্চ শনিবার ছুটির দিন বিশেষ আদালত বসিয়ে আসামি রুহুল আমিনের জামিন বাতিল করেন হাইকোর্ট।

গত ১৮ মার্চ রুহুল আমিনের এক বছরের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেছিলেন হাইকোর্ট। ওই জামিনে আদালতকে বিভ্রান্ত করা হয়েছে বলে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা সংশ্লিষ্ট আদালতকে অবহিত করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ৩০ ডিসেম্বর ভোটের রাতে রুহুল আমিনের নির্দেশে তার অনুসারীরা এক নারীকে গণধর্ষণ করেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর স্বামী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। পরে পুলিশ রুহুল আমিনকে গ্রেফতার করে। উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য রুহুল আমিনকে পরে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।

টিবিজেড/









Leave a reply