ফেনীর সেই ছাত্রীর অস্ত্রোপচার সম্পন্ন, শ্বাস নিতে পারছেন

|

ফেনীর সোনাগাজীতে পরীক্ষাকেন্দ্রে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে দগ্ধ সেই মাদ্রাসাছাত্রীর অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। এখন তিনি শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পারছেন বলে জানিয়েছে মেডিকেল বোর্ড।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের অপারেশন থিয়েটারে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু হয় অস্ত্রোপচার। শেষ হয় দুপুর সাড়ে ১২টায়।

অস্ত্রোপচার শেষে মেডিকেল বোর্ডের প্রধান ও হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম জানান, সফল অপারেশন হয়েছে। এখন শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পারছেন ওই ছাত্রী।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, ওর শ্বাসনালি পুড়ে গেছে। শ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছিল। সে যাতে স্বাভাবিকভাবে শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পারে সে জন্য এই অস্ত্রোপচার করা হয়েছে।

এই অস্ত্রোপচারকে এসকারাটমি বলে উল্লেখ করেন ডা. আবুল কালাম। তিনি বলেন, আমরা আগেই বলেছিলাম তার অস্ত্রোপচার করা লাগবে। সকালে আমরা সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারাও আমাদের মেডিকেল বোর্ডের অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্তে একমত পোষণ করেছেন। উভয় সিদ্ধান্তক্রমে ওই ছাত্রীর অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে।

ডা. আবুল কালাম জানান, এখন ওই ছাত্রী গতকালের থেকে একটু ভালো আছে। বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল বার্ন ইউনিটের আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে আছেন তিনি। অস্ত্রোপচারের তথ্য ও বর্তমান শারীরিক অবস্থার আপডেটসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ফের সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। এরপর সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকদের সঙ্গে আবারও আজ (মঙ্গলবার) বিকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কথা হবে।

এর আগে সকালে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স শেষে ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, ওই ছাত্রীকে এখনই সিঙ্গাপুরে নেয়া যাবে না। তিনি বলেন, ওর অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় এ মুহূর্তে সিঙ্গাপুরে নেয়ার মতো পরিস্থিতি নেই। সিঙ্গাপুরে নিতে গেলে জার্নিতে যে ধকল থাকবে, সেটি সামাল দেয়ার মতো অবস্থায় নেই সে। তাই তাকে আপাতত বার্ন ইউনিটেই চিকিৎসা দেয়া হবে। অবস্থার উন্নতি হলে তখন বিদেশ নেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।









Leave a reply