দেশের পোশাক বাজারের ৪০ ভাগ বিদেশি কাপড়ের দখলে

|

দেশের পোশাকের বাজারের ৪০ ভাগ দখল করে আছে বিদেশি কাপড়। এখনই বিদেশি কাপড় নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে স্পিনিং মিলসহ শত শত কারখানা বন্ধ হয়ে যাবে। এমন শঙ্কা জানিয়েছেন, বিটিএমএ সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন।

বন্ডেড ওয়ার হাউজ সুবিধায় আনা শুল্কমুক্ত কাপড়-সূতাসহ অন্যান্য পণ্য খোলা বাজারে বিক্রি হচ্ছে। এতে মারাত্নকভাবে দেশীয় উৎপাদকরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বলেও জানান তিনি। দুপুরে বিটিএমএ,হ্যান্ডলুম ও পাওয়ার লুম অ্যাসোসিয়েন, ইয়ার্ণ মার্চেন্টসহ এখাতের ৮ সংগঠনের যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানায়।

বক্তারা বলেন, বিশ্ববাজারের দ্বিতীয় পোশাক রফতানিকারক হওয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে স্থানীয় স্পিনিং মিলসহ প্রাইমারি খাতের কারখানাগুলো। বর্তমানে গ্যাস বিদ্যুতের মুল্যবৃদ্ধিতে দামের প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে পড়ছে। আর সেই জায়গা দখল করে ভারত-চীনসহ বিদেশি কাপড়। বন্ডেড সুবিধায় আনা পণ্যের গায়ে ‘নট ফর সেল’ লিখে দেয়ার দাবি জানান বিটিএমএ সভাপতি।









Leave a reply