২০ লাখ বিড়াল মারবে অস্ট্রেলিয়া!

|

পোষ্য প্রাণী হিসেবে বিড়ালের কদর থাকলেও ২০২০ সালের মধ্যে অন্তত ২০ লাখ বিড়াল হত্যা করবে অস্ট্রেলিয়া সরকার। তবে বিড়ালের সংখ্যার আধিক্যের কারণেই শুধু এই সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে না। বরং বিড়ালের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের কারণেই ‘বিড়াল হত্যার’ মতো নিষ্ঠুর পথে হাঁটতে বাধ্য হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া কর্তৃপক্ষ।

আর এই বিড়াল হত্যায় অস্ট্রেলিয়া সরকার অভিনব পদ্ধতিও গ্রহণ করছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, বনের লাখ লাখ হেক্টর জমিতে বিষাক্ত সস ফেলা হবে বিমান থেকে। আর সেই বিষাক্ত সস খেয়ে মারা পরবে বনের হিংস্র বিড়ালরা। আর এভাবেই ২০২০ সাল নাগাদ বিড়াল হত্যার কার্যক্রম চালিয়ে যাবে অস্ট্রেলিয়া সরকার। আর এই সময়ে ২০ লাখেরও বেশি বিড়াল মারবে কর্তৃপক্ষ।

সেখানকার বিড়ালের বিরুদ্ধে প্রধান অভিযোগ, অস্ট্রেলিয়ায় প্রতিদিন প্রায় ১০ লাখেরও বেশি পাখি হত্যা করে বন্য ও পোষা বিড়াল। বিড়ালের এই ‘খুনে স্বভাবের’ কারণে দেশটির অনেক প্রজাতির পাখি এখন বিলুপ্তির পথে। বায়োলজিক্যাল কনভারসেশন জার্নালে প্রকাশিত এই গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটিতে বন বিড়ালরা প্রতিবছর সাড়ে ৩১ কোটি এবং পোষা বিড়াল বছরে ৬ কোটি ১০ লাখ পাখি হত্যা করে।

চার্লস ডারউইন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় দেখা যায়, এভাবে পাখি নিধন অব্যাহত থাকলে অনেক প্রজাতির পাখি বিলুপ্ত হয়ে যাবে। মূলত এই কারণেই বিড়ালের বিরুদ্ধে রীতিমতো যুদ্ধ ঘোষণা করেছে অস্ট্রেলিয়া।

মজার বিষয় হলো, অস্ট্রেলিয়ার মতো নিউজিল্যান্ডেও বিড়াল সম্পর্কে কিছু নীতিমালা গ্রহণ করা হয়েছে। প্রাণী সংরক্ষণে সোচ্চার দেশ নিউজিল্যান্ডও ভবিষ্যতে বিড়ালবিহীন নিউজিল্যান্ড দেখতে চায়।

যমুনা অনলাইন: আরএস









Leave a reply