ফণি মোকাবেলায় যা করণীয়

|

বাংলাদেশের এযাবতকালের শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ফণি আগামীকাল শুক্রবার বাংলাদেশে আঘাত হানতে পারে বলে আবাহওয়া অধিদপ্তরের এ পূর্বাভাসে বলা হয়েছে। ভারতের উড়িষ্যা হয়ে এটি বাংলাদেশ অতিক্রম করার সময় গতি বেগ হবে ঘণ্টায় ১৫০ থেকে ১৮০ কিলোমিটার।

ফণির সম্ভাব্য দুর্যোগের কথা মাথায় রেখে এরমধ্যেই সকল ধরণের নৌচলাচল বন্ধ রাখতে বলেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)। এছাড়া দুর্যোগ মোকাবেলায় বিআইডব্লিউটিএ’র সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল করেছে কর্তৃপক্ষ।

১। রাস্তায় থাকলে শপিং মল, মসজিদ, স্কুল বা যেকোনো বিল্ডিং এ আশ্রয় নিন। কোনভাবেই খোলা আকাশের নিচে থাকা যাবে না।

২। এই সপ্তাহে জ্যামে পড়লে গাড়ির পাশে যায়গা রেখে দাঁড়ানোর চেষ্টা করুন যেন বিপদের মুহূর্তে দরজা খোলা যায়।

৩। বিল্ডিং এ কারেন্ট এবং গ্যাস এর মেইন লাইন অফ করে দিন।

৪। দরজা জানালা বন্ধ রাখুন যাতে বাইরে থেকে ময়লা বা ভারী কিছু উড়ে এসে আঘাত করতে না পারে।

৫। টিনশেড বাসা হলে বা নিচু যায়গায় হলে যদি সেইফ মনে না হয়, নিরাপদ কোথাও আশ্রয় নিন।

৬। ফোনে রেডিও শুনতে হবে। ডাটা কানেকশন অন রেখে ফেসবুক স্ক্রল করলে ব্যাটারিও দ্রুত শেষ হবে, নেটওয়ার্কও বেশি বিজি থাকবে।

৭। কোন ভাবেই ট্যাপের পানি সরাসরি খাওয়া যাবে না। ফুটিয়ে বা ভালো ফিল্টারে (যেমন পিওর ইট বা RO ফিল্টার) ব্যবহার করতে হবে। পাথর ওয়ালা নরমাল ফিল্টারে জীবাণু থেকেই যাবে।

৮। খুব বেশি জরুরি না হলে রাস্তায় বের হওয়া যাবে না। ইলেকট্রিক শক খাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকবে।

৯। কল করে নেটওয়ার্ক বিজি না রেখে SMS ব্যবহার করে খোঁজ নেওয়ার চেষ্টা করুন। ডাটা কানেকশন অফ রাখুন।









Leave a reply