বাগেরহাটে ডোবা থেকে প্রথম শ্রেণীর ছাত্রীর লাশ উদ্ধার: পরিবারের দাবী ধর্ষণের পর হত্যা

|

বাগেরহাট জেলা-যুগান্তর

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাট সদর উপজেলার পাতিলাখালী এলাকায় ফারিয়া আক্তার (৭) নামের প্রথম শ্রেণীর এক ছাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এই ঘটনায় পুলিশ সোয়েব (১৬) নামের এক কিশোরকে আটক করেছে। রবিবার রাতে পাতিলাখালী ওই শিশুর বাড়ীর সামনের ডোবা থেকে পুতে রাখা লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত শিশু ফারিয়ার পিতা ওমর আলী শেখ জানান, তার কন্যাকে এদিন বিকাল থেকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। অনেক খোঁজাখোজির পর বাড়ীর সামনের ডোবা থেকে রাতে লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনি (মেয়ের বাবাসহ পরিবারের লোকজন) প্রাথমিকভাবে ধারনা করছে শিশুটিকে অপহরণের পর ধর্ষণ করে হত্যা করা হয়েছে। পরে তার লাশ গুম করতে ডোবাই পুতে রাখা হয়।

বাগেরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাতাব উদ্দিন জানান, সন্ধ্যায় ফারিয়া নিখোঁজের খবর পান তিনি। পরে এলাকাবাসীর সহায়তায় এই এলাকার একটি ডোবা থেকে ফারিয়ার লাশ উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ১ কিশোরকে আটক করা হয়। তবে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে শিশুটিকে শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

এবিষয়ে বাগেরহাট পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায় মুঠোফোনে জানান ,শিশুটিকে শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয়েছে তবে ধর্ষণ করা হয়েছে কিনা তা তদন্ত ও ডাক্তারি পরীক্ষার পর বলা সম্ভব হবে।









Leave a reply