ভেজাল ৫২টি পণ্য: বিএসটিআই’র ডেপুটি ডিরেক্টরদের আদালতে হাজিরের নির্দেশ

|

বিএসটিআইয়ের ঘোষিত ভেজাল ৫২টি পণ্য বাজারে থাকার ঘটনায় বিএসটিআই ও নিরাপদ খাদ্য অধিদপ্তরের ডেপুটি ডিরেক্টরদের আদালতে হাজিরের নির্দেশ হাইকোর্ট। আগামী রবিবার পরবর্তী আদেশের দিন ধার্য করা হয়। সকালে বিএসটিআই ল্যাবে পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়া ৫২টি ভেজাল ও নিম্নমানের পণ্য বাজার থেকে প্রত্যাহার চেয়ে হাইকোর্টে রিটের শুনানিতে আদালত এ কথা বলেন।

আদালত হতাশা প্রকাশ করে আরও বলেন, রুপচাঁদা, প্রাণের মত পণ্যে ভেজাল। আমরা কোথায় যাবো। প্রতি সপ্তাহেই আদালতে ভেজাল খাবারের মামলা আসছে। এত ভেজাল, এত সাহস পায় কি করে তারা। কি করবো আমরা। এই ভেজাল রোধ করা সরকারের কাজ। এটাতো কোর্টের কাজ না। কোর্ট কতদূর করতে পারবে।

বিএসটিআই ও নিরাপদ খাদ্য অধিদফতর নিয়ে হাইকোর্ট বলেন, এই প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বরতরা কি মানুষ? তারা কি বাজারে এগুলো দেখে না। তারা এত বড় অফিস নিয়ে বসে আছে কেন। অফিস ছেড়ে দিক।

এরআগে সকালে (বিএসটিআই) ল্যাবে পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়া ৫২টি ভেজাল ও নিম্নমানের পণ্য বাজার থেকে প্রত্যাহার এবং পরবর্তীতে বিএসটিআই কর্তৃক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়া পর্যন্ত এসব পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করে ভোক্তা অধিকার সংস্থা ‘কনসাস কনজুমার্স সোসাইট’ (সিসিএস)।

উল্লেখ্য, গত ৩ ও ৪ মে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে উল্লেখ করা হয়েছে- বিএসটিআই সম্প্রতি ২৭ ধরনের ৪০৬টি খাদ্যপণ্যের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করেছে।

এর মধ্যে ৩১৩টি পণ্যের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। যেখানে ৫২টি পণ্য নিম্নমানের ও ভেজাল রয়েছে। গত ২ মে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ রিপোর্ট প্রকাশ করে বিএসটিআই। পরবর্তীতে বিএসটিআইয়ের ওই তালিকা সংগ্রহ করে সিসিএস।









Leave a reply