কালকিনিতে স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার, আটক ১

|

প্রদ্যুৎ কুমার সরকার, মাদারীপুর

মাদারীপুরের কালকিনিতে একটি ভাড়া বাসা থেকে মালিহা আক্তার (১৭) নামের এক স্কুলছাত্রীর গলায় ফাঁস দেয়া ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মালিহা চলতি বছর এসএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়েছিল। পরীক্ষায় ফেল করে আত্মহত্যা নাকি প্রেমিকের সাথে অভিমান করে আত্মহত্যা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। পুলিশ এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মালিহার প্রেমিক রাকিবকে আটক করেছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, জেলার কালকিনি উপজেলার বাশগাড়ি ইউনিয়নের কানুরগাও গ্রামের মানিক বেপারীর মেয়ে মালিহা আক্তার বুধবার বিকেলে তার মামা বাড়ি থেকে নিজের বাসায় আসে।  তার মা বাসায় না থাকায় একাই ছিল। এসময় তার প্রেমিক কালকিনি সৈয়দ আবুল হোসেন কলেজের অনার্সের প্রথম বর্ষের ছাত্র রাকিব বেপারী তার সাথে দেখা করতে ওই বাসায় আসে। পরে তাদের মধ্যে কোন বিষয় নিয়ে কথাকাটিাকাটি হলে রাকিব চলে যায়। বৃহস্পতিবার সকালে পরিবারের লোকজন মালিহাকে ডাকলে দরজা না খোলায় তারা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে দরজা ভেঙ্গে ফ্যানের সাথে ওড়না পেচানো অবস্থায় মালিহার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

মালিহা চলতি বছর কালকিনি পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে অকৃতকার্য হয়। গত বছরও পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে সে অকৃতকার্য হয়েছিল। কালকিনি পৌর এলাকার পাঙ্গাশিয়া গ্রামের বেলায়েত বেপারীর ছেলে রাকিব বেপারীর সাথেও বেশ কিছু দিন ধরে মোবাইলে তার প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। পুলিশ এ ঘটনায় রাকিব বেপারীকে জিজ্ঞাসাদের জন্য আটক করেছে।

কালকিনি থানার ওসি মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, স্কুলছাত্রী মালিহা চলতি বছর এসএসসি পরীক্ষায় এক বিষয় পরীক্ষা দিয়েও সে কৃতকার্য হতে পারেনি। আবার এক ছেলের সাথেও প্রেমঘটিত ব্যাপারে অভিমান চলছিল। তাই তার আত্মহত্যার পিছনে এই দুটি কারণই খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তার লাশ ময়না তদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।  এ ঘটনার জড়িত সন্দেহে রাকিব বেপারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।









Leave a reply