একসঙ্গে তিন সন্তানের জন্ম দিলেন গাইবান্ধার সুমি বেগম

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

অস্ত্রোপচার ছাড়াই গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে সুমি বেগম (২৩) নামে এক গৃহবধূ একসঙ্গে তিনটি সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। শনিবার ভোর রাতে বাবার বাড়িতে নরমাল ডেলিভারিতে তিন সন্তানের জন্ম দেন সুমি বেগম। তিন সন্তানের দুটি ছেলে ও একটি মেয়ে। বর্তমানে মা সুমি বেগম ও তিন সন্তান সুস্থ রয়েছে।

সুমি বেগম সাদুল্যাপুরের গঙ্গানারায়নপুর গ্রামের নুর নবীর স্ত্রী। জীবিকার টানে স্বামী ঢাকায় থাকায় ধাপেরহাট বোয়ালিদহ গ্রামের বাবা সামাদ মিয়ার বাড়িতেই থাকেন সুমি বেগম।

এদিকে, এক সঙ্গে তিন সন্তান জন্মের খবর গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে সামাদ মিয়ার বাড়িতে ভিড় করেন গ্রাম ও আশপাশের শতশত নারী-পুরুষ।

তিন সন্তান ও মায়ের শারীরিক অবস্থা ভালো বলে জানিয়েছেন ধাপেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম নওশা মণ্ডল। তিনি বলেন, ‘পরিবারটি খুবই গরিব। জীবিকার টানে স্ত্রীকে তার বাবার বাড়িতে রেখে ঢাকায় যান স্বামী নুর নবী মিয়া। বর্তমানে তিন সন্তানকে নিয়ে বাবার জরার্জীণ বাড়িতে অবস্থান করছেন সুমি বেগম। প্রতিদিন দুধসহ বাড়তি খাবার খাওয়াতে হবে শিশুদের। কিন্তু দুধ ও বাড়তি খাবার কেনার সামর্থ পরিবারের নেই। খাবারের ব্যবস্থা না হলে সন্তান তিনটিকে বাঁচানো সম্ভব হবে না। তবে তাৎক্ষণিক ভাবে নগদ টাকা এবং গরম থেকে বাঁচতে বাড়িতে একটি ফ্যানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া সুমি বেগমের জন্য একটি প্রসূতি ভাতার কার্ডের ব্যবস্থা করার আশ্বাস দেন তিনি।’

তিন নবজাতক শিশুর বাবা নুর নবী বলেন, স্থানীয় পল্লি চিকিৎসকের পরামর্শে নরমাল ডেলিভারিতে তিন সন্তানের জন্ম দেন স্ত্রী সুমি বেগম। তিন সন্তানের জন্মের খবর পেয়ে খুশি হলেও তাদের বাঁচাতে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা আর খাবার সংকটে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন।

মা সুমি বেগম বলেন, আল্লাহ আমাদের ঘরে একসঙ্গে তিনটি সন্তান দান করেছেন। আমি তাদের জন্য সবার কাছে দোয়া কামনা করছি। সন্তান তিনজন যেন সুস্থভাবে বেঁচে থাকতে পারে সেজন্য সহযোগিতাও কামনা করেন তিনি।









Leave a reply