স্কুলছাত্রীর নগ্ন ছবি ধারণ করে চাঁদা দাবি

|

প্রতীকি ছবি

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

রাজবাড়ীতে অষ্টম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে (১৪) তুলে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক জামাকাপড় খুলে নগ্ন করে মোবাইল ফোনে ছবি ধারণ এবং ওই ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেবার হুমকি দিয়ে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ওই অভিযোগে গত শুক্রবার সকালে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে তিন জনকে আসামি করে রাজবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনায় পুলিশ হারুন সেখ (৩০) নামে একজন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে।

মামলার অন্য আসামিরা হলো- মুকুন সরদারের ছেলে রিপন সরদার (২৫) এবং রশিদ সেখের ছেলে তৈয়ব সেখ (৩০)।

ওই ছাত্রীর বাবা জানান, গত মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে তার মেয়ে নিজ বাড়ির টিউবওয়েলে ওজু করতে যায়। সে সময় ওই টিউবওয়েলের পাশে থাকা রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল হারুন, রিপন ও তৈয়ব। তারা তখন টিউবওয়েলের কাছে আসে এবং মেয়েটির মুখ চেপে ধরে বাড়ির পাশে একটি মেহগনী বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে জামাকাপড় খুলতে বলে।

মেয়েটি অস্বীকৃতি জানালে চড় থাপ্পড় মেরে জোরপূর্বক জামা খুলে ফেলে তিনজন তাদের মোবাইলে সেই দৃশ্য ধারণ করে। এরপর মেয়েটিকে বলা হয়, ২০ হাজার টাকা আগামী দুই দিনের মধ্যে না দিলে ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়া হবে।

এ সময় স্থানীয় মুসুল্লীরা মসজিদের যাওয়ার জন্য ওই রাস্তার পাশে এলে মেয়েটিকে নগ্ন অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতিকারীরা।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও রাজবাড়ী থানার এসআই জাহিদুল ইসলাম জানান, ইতোমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। সেই সাথে প্রধান আসামি হারুনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।









Leave a reply