ঠাকুরগাঁওয়ে তিন সন্তানের জননীকে গণধর্ষণ

|

ঠাকুরগাঁওয়ে তিন সন্তানের জননী গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। রবিবার গভীর রাতে সদর উপজেলা বড়গাও ইউনিয়নের কিসমত চামেশ্বরী জাগির পাড়ায় এঘটনা ঘটে। সোমবার দুপুরে ক্ষতিগ্রস্ত নারীকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

ক্ষতিগ্রস্ত নারী জানান, তার স্বামী ও সে নিজেও অন্যের বাসায় দিনমজুরের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে। রোববার দুপুরে তার স্বামী কাওসার আলী মজুরের কাজে টাঙ্গাইল চলে যায়। প্রতিদিনের মতো সে মাঠে কাজ শেষে সন্ধ্যায় বাসায় ফিরে আসে। বাসায় আসার পর রাতে বান্না করে খাওয়া শেষে তিন সন্তানসহ ঘুমিয়ে পড়ে। পরে মধ্যরাতে একই গ্রামের হারুনুর রশীদ, শাহীন, ময়নুল ও ফখরুল ইসলাম কৌশলে ঘরের দরজা খুলে তার হাত মুখ বেঁধে পর্যায়ক্রমে ধর্ষণ করে। এসময় সে অচেতন হয়ে পড়লে আর কিছুই বলতে পারেনা। আজ সোমবার সকালে ১১বছর বয়সী বড় ছেলে লিটন তাকে অচেতন অবস্থায় দেখতে পেয়ে প্রতিবেশিদের খবর দেয়। পরে প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে দুপুরে তার স্বাস্থ্যের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়।









Leave a reply