চালের বরাদ্দ নিয়ে হাতাহাতি, আ.লীগ নেতা লাঞ্ছিত

|

স্টাফ রিপোর্টার, নেত্রকোণা:

নেত্রকোণা জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়ে চালের বরাদ্দ নিয়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মানিক লাঞ্চিত হয়েছেন।

আজ সোমবার বিকেলে নেত্রকোণা জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কার্যালয়ে চাল কল মালিক সমিতির সভাপতি এইচ আর খান পাঠান সাকি ও মানিকের মধ্যে বরাদ্দ সংক্রান্ত ঘটনা কথার কাটাকাটির এক পর্যায়ে হাতাহাতির এ ঘটনা ঘটেছে। এসময় মানিককে টানাহেঁচড়া করে তার পরিহিত পাঞ্জাবি ছিড়ে ফেলে প্রতিপক্ষ। পরে কার্যালয়টির কর্মকর্তা-কর্মচারিরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনেন।

সভাপতি সাকিকে শান্ত করতে তাৎক্ষণিক তাকে কার্যালয়ের আঙিনার বাইরে বের করা হয় এবং মানিককে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কক্ষে বসিয়ে রাখেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

এদিকে পরিস্থিতি দেখে নিজ দপ্তর থেকে বেরিয়ে দ্রুত চলে যান জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক সুরাইয়া খাতুন। পরে এ ব্যাপারে জানতে চেয়ে তাঁর মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

ঘটনার পর আইনের আশ্রয় নেয়ার কথা জানিয়ে ছেড়া পাঞ্জাবি পড়েই একপর্যায়ে অফিস থেকে বের হয়ে যান মানিক। এসময় তিনি জানান, সরকার কর্তৃক বরাদ্দ জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক সুরাইয়া মিল মালিকদের সমপরিমাণে বন্টন না করে সিন্ডিকেট চক্রের হাতে ছেড়ে দিয়েছেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে তার উপর আক্রমণ চালানো হয়।

তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় সাকি সহ দুজনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। এ ব্যাপারে জানতে চেয়ে সাকির সাথেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

নেত্রকোণার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ ফখরুজ্জামান জুয়েল জানান, ঘটনা শুনেছি তবে এ নিয়ে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার সকালে নেত্রকোণায় চলতি মৌসুমের চাল সংগ্রহ কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করে জেলা খাদ্য বিভাগ। জেলার দশটি উপজেলার ১৩ টি খাদ্যগুদামে ৫৫ হাজার ২২২ মেট্রিকটন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়।









Leave a reply