১০ টাকা ধরিয়ে দিয়ে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

|

ফেনী প্রতিনিধি:

ফেনীর ছাগলনাইয়ায় সাত বছরের শিশুকে ১০ টাকার লোভ দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে মো. বাহার (২৫) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার দুপুরে ওই শিশু ধর্ষণের শিকার হয়। এ ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে ছাগলনাইয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন। রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে বাহারকে গ্রেপ্তার করে।

আজ শনিবার ফেনীর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসানের আদালতে সে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। বাহার ছাগলনাইয়া উপজেলার পূর্ব শিলুয়া নাপিতঘাটা এলাকার রুহুল আমিনের ছেলে। তিনি পেশায় হকার।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, ছাগলনাইয়ায় ভাড়া বাসায় থাকেন শিশুটির পরিবার। ঘটনার দিন শিশুটির বাবা-মা বাসায় ছিলেন না। সেই সুযোগে বাহার শিশুটির হাতে ১০ টাকার একটি নোট ধরিয়ে দেন। এরপর তাকে কোলে করে পাশের একটি দোকানঘরে নিয়ে ধর্ষণ করেন। দোকানঘরে শিশুর কান্নার শব্দ শুনে শিশুটির মা সেখানে গিয়ে বাহারকে দেখতে পান। তিনি পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় লোকজন তাঁকে ধাওয়া করে। পরে পুলিশ গতকাল রাতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে।

ছাগলনাইয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এম মুর্শেদ বলেন, শিশু ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। শিশুটির শারীরিক পরীক্ষার জন্য ফেনী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। শারীরিক পরীক্ষা শেষে ২২ ধারায় শিশুটির জবানবন্দি নেওয়া হবে। আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে পাঠিয়ে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি গ্রহণের আবেদন জানানো হবে।









Leave a reply