আওয়ামী লীগের কর্মসূচির জায়গা ময়লার স্তুপ, দু’পক্ষে মারামারি

|

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণকে ইউনেসকো স্বীকৃতি দেওয়ায় ১৮ নভেম্বরের নাগরিক সমাবেশ করবে আওয়ামী লীগ। আজিমপুর কমিউনিটি সেন্টারে তারই প্রস্তুতি সভা ও সদস্য নবায়নের কর্মসূচি ছিল মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের।

একই সময়ে কমিউনিটি সেন্টারের সামনে ৩৮ নম্বর ওয়ার্ডের কমিশনার আবু আহমেদকে ‘লাঞ্ছিত’ করার প্রতিবাদে বিক্ষোভের ডাক দেয় আরেকটি পক্ষ। স্থানীয়দের বক্তব্য, এই পক্ষটি দক্ষিণ সিটি মেয়র সাঈদ খোকনের অনুসারী।

প্রতিপক্ষকে বাধা দিতে মেয়রের অনুসারীরা গাড়িতে করে ময়লা এনে আগের রাতে কমিউনিটি সেন্টারের সামনে ফেলে রাখে বলে অভিযোগ প্রতিপক্ষের। এ নিয়েই সকাল থেকে চলে উত্তেজনা। এরপর মারপিট, সংঘর্ষে আহত হন বেশ কয়েকজন।

মারামারি একপর্যায়ে পার্ল হারবার কমিউনিটি সেন্টারের সামনে রাখা তিনটি মোটরসাইকেলে আগুন দেয়া হয়। তবে কোন পক্ষ আগুন দিয়েছে কিংবা কার মোটরসাইকেল পোড়ানো হয়েছে তা জানা যায়নি। বেলা একটার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

পুলিশের লালবাগ জোনের ডিসি ইব্রাহিম খান বলেন, একই সময় কর্মসূচি থাকায় সকাল থেকে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

তবে মেয়র সাঈদ খোকন দাবি করেছেন, এসবের কিছুই তিনি জানেননা। এদিকে ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।









Leave a reply