টাঙ্গাইলে চলন্তবাসে গণধর্ষণ মামলায় চার আসামির যাবজ্জীবন

|

শামীম আল মামুন, টাঙ্গাইলঃ

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে চলন্তবাসে গৃহবধূকে গণধর্ষণ মামলায় চার আসামিকে যাবজ্জীবন দিয়েছে আদালত। সেই সাথে প্রত্যেক আসামিকে এক লাখ টাকা জরিমানাও ধার্য করেছে। টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক বেগম খালেদা ইয়াসমিন আজ বুধবার দুপুরে এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় আদালতে তিন আসামি উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, বাস চালক হাবিবুর রহমান নয়ন (২৮), সুপারভাইজার রেজাউল করিম জুয়েল (৩৮), হেলপার মোঃ খালেক ভুট্টো (২৩) ও আশরাফুল (২৬) । এদের মধ্যে রেজাউল করিম জুয়েল পলাতক রয়েছে।

রাষ্ট্র পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিশেষ পিপি নাসিমুল আক্তার নাসিম। তাকে সহায়তা করেন মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা টাঙ্গাইল জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আতাউর রহমান আজাদ।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৬ সালের ১ এপ্রিল এক গার্মেন্টস কর্মী টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী বাসস্ট্যান্ড থেকে ভোর পাঁচটার দিকে ‘বিনিময় পরিবহনের’ একটি বাসে গাজীপুরের কালিয়াকৈরের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। এসময় বাসে যাত্রী না থাকার সুযোগে বাসটি কিছুদূর যাওয়ার পর সুপারভাইজার বাসের জানালা দরজা বন্ধ করে দেয়। পরে গাড়ির স্টাফরা তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এরপর ভূক্তভোগীকে ময়মনসিংহ রোডের একটি ফাঁকা জায়গায় নামিয়ে দিয়ে তারা বাস নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে ভূক্তভোগী স্বামীকে বিস্তারিত জানালে তাঁর স্বামী তাঁকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

ভূক্তভোগীর স্বামী বখতিয়ার বাদী হয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানায় ৯ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করে। পুলিশ ঐদিনই ঘটনার সাথে জড়িত বাসের চালক, হেলপার ও সুপার ভাইজারকে গ্রেপ্তার করে। পরে তদন্ত শেষে চার জনকে আসামি করে চার্জশিট প্রদান করে এবং ছয়জনকে অব্যহতি দেয়।









Leave a reply