বিপিএলে জুয়াড়ি সন্দেহে ভারতীয়সহ ৭৭ জন আটক

|

বিপিএল শুরুর পর থেকে শুক্রবার পর্যন্ত জুয়াড়ি সন্দেহে স্টেডিয়াম এলাকা থেকে ৭৭ জনকে আটক করেছে বিসিবির দুর্নীতি দমন বিভাগ। এদের মধ্যে ১০ জন ভারতীয়ও রয়েছেন। এছাড়া আছেন অন্য দেশেরোও ২ জন নাগরিক। আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় এসব তথ্য জানান বিপিএল গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান আফজালুর রহমান সিনহা।

তিনি অভিযোগ করেন, আটকরা খেলার সময় গ্যালারি থেকে বেটিংয়ে সহায়তা করছিল। বিসিবির বিশেষ টিম আঁড়ি পেতে তাদের শনাক্ত করে। আটকের পর সবাইকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।

আফজালুর রহমান সিনহা বলেন, এদেরকে পুলিশের হাতের সোপর্দ করা হয়েছে। কিন্তু খেলায় জুয়া ধরার বিষয়ে তেমন কোনো আইন দেশে নেই, যা দিয়ে দোষীদের শায়েস্তা করা যাবে। এ নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেন এই ক্রিকেট ব্যবস্থাপক।

এদিকে ক্লাব ক্রিকেটে টি-টোয়েন্টি ফরমেট আবারও চালু করার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন বিসিবি পরিচালক আই এইচ মল্লিক।

বিপিএলের পঞ্চম আসরে একাদশে ৫ ক্রিকেটার খেলার তত্বে বঞ্চিত হচ্ছেন স্থানীয় ক্রিকেটাররা। এমন কি দলেও জায়গা হয়নি অনেক অভিজ্ঞ আর তরুণ ক্রিকেটারদের। ফলে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের এমন সিদ্ধান্তের সমালোচনা হয় গণমাধ্যমে। স্থানীয় ক্রিকেটারদের টি-টোয়েন্টি খেলতে না পরার আক্ষেপ ঘোঁচাতে বিকল্প চিন্তা করেছে ক্রিকেট বোর্ড। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলোকে নিয়ে এবার টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনা করছে বিসিবি।

এদিকে যমুনা টেলিভিশনে রিপোর্টের পর খেলা চলাকালীন স্টেডেডিয়ামে ধূমপান করায় বিপিএল থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে মইনুল হককে।

প্রিমিয়ার লিগের দলগুলোকে নিয়ে আগেও টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজন করে বোর্ড। ২০১৩’তে মাঠে গড়ায় বিজয় দিবস টি-টোয়েন্টি। বিপিএলের মতো মেগা আসরে স্থানীয় ক্রিকেটারদের তৈরি রাখতে এ ধরনের আসর নিয়মিত করতে চায় বিসিবি।

 









Leave a reply