স্ত্রীকে নকল দিতে গিয়ে কারাগারে পুলিশ কর্মকর্তা

|

পটুয়াখালী প্রতিনিধি:

পটুয়াখালীতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় স্ত্রীকে নকল সরবরাহ করতে গিয়ে পুলিশের এএসআই মাহাবুবুর রহমানকে জেলে যেতে হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্ত এই কর্মকর্তা পটুয়াখালী সদর সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কার্যালয়ে কর্মরত। শুক্রবার দুপুরে শহরের রশিদ কিশালয় বিদ্যায়তনে এ ঘটনা ঘটে।

জেলা প্রশাসন ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার পটুয়াখালীতে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হয়। পটুয়াখালী সদর সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে কর্মরত মাহাবুবুর রহমানের স্ত্রী রশিদ কিশালয় বিদ্যায়তনে অনুষ্ঠিত ওই পরীক্ষায় অংশ নেয়। পরীক্ষা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পর পুলিশের পোশাক পরা অবস্থায় মাহবুব তার স্ত্রীকে উত্তরপত্র সরবরাহ করে। এসময় ওই কক্ষে দায়িত্বরত পটুয়াখালী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উম্মে হাবিবা তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। এসময় মাহাবুবের কাছ থেকে উত্তরপত্র উদ্ধার করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। ঘটনার খবর পেয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক নুরুল হাফিজ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) জিয়াইর রহমান এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সরদ সার্কেল মো. জসিম উদ্দিন হাজির হন। পরে এএসআই মাহাবুবকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নুরুল হাফিজ বলেন, মাহাবুব নামে এক ব্যক্তি পরীক্ষার হলে থাকা তার স্ত্রীকে নকল সরবরাহ করে। যার জন্য তাকে কারাদণ্ড দেয়া হয়। তবে এ বিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।









Leave a reply