হিন্দুত্ববাদের জয়েও লোকসভায় বাড়ল মুসলিম সদস্য সংখ্যা!

|

New Delhi: All India Majlis-e-Ittehadul Muslimeen (AIMIM) President Asaduddin Owaisi speaks in the Lok Sabha during the Monsoon Session of Parliament, in New Delhi on Monday, July 23, 2018. (LSTV GRAB via PTI)(PTI7_23_2018_000061B)

ভারতের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে মুসলমান আইনপ্রণেতাদের সংখ্যা কিছুটা হলেও বেড়েছে। এবারের নির্বাচনে ২৬ মুসলমান প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। তাদের মধ্যে কাশ্মীরের ফারুক আব্দুল্লাহ ও হায়দরাবাদের আসাদউদ্দিন ওয়াইসি উল্লেখযোগ্য।-খবর বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের

গত লোকসভায় ২৩ মুসলমান সদস্য ছিলেন। তাদের অধিকাংশই কংগ্রেস ও তৃণমূল কংগ্রেস থেকে নির্বাচিত হয়েছিলেন। ১৯৮০ সালে সবচেয়ে বেশি মুসলমান প্রার্থী লোকসভায় নির্বাচিত হয়েছিলেন।

ভারতের জনসংখ্যার এক পঞ্চমাংশ হচ্ছেন মুসলমানরা। এসব প্রার্থীরা তাদের হয়ে লোকসভায় প্রতিনিধিত্ব করেন।

হায়দরাবাদ থেকে দুই লাখ ৮২ হাজার বেশি ভোট জয়ী হয়েছেন ওয়াইসি। এটা তার টানা চতুর্থ বিজয়। ভারতের সবচেয়ে বেশি মেয়াদে নির্বাচিত মুসলমান প্রার্থী হচ্ছেন তিনি।

তার দলের প্রার্থী সাবেক সাংবাদিক ইমতিয়াজ জলিল সাঈদ মহারাষ্ট্র থেকে ৪৫ হাজার বেশি ভোটে জয়ী হয়েছেন। উত্তর প্রদেশ থেকে চার মুসলমান প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। এছাড়াও আরও দুই প্রার্থী এগিয়ে রয়েছেন।

১৪ ও ১৫তম লোকসভা নির্বাচনে ৩০ ও ৩৪ মুসলমান প্রার্থী বিজয়ী হয়েছিলেন। তখন কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকার ক্ষমতায় ছিল।

আর ১৯৮৪ সালে ক্ষমতায় আসেন রাজিব গান্ধী। তখন দেশটিতে লোকসভায় ৪২ মুসলমান সদস্য ছিলেন। আর লোকসভায় সবচেয়ে কম মুসলমান প্রার্থী ছিলেন ১৯৫২ সালে। তখন ১১ মুসলমান প্রার্থী নির্বাচিত হন।









Leave a reply