ভোটে জিতে বিশ্বনাথ মন্দিরে পুজা দিলেন মোদি

|

বারাণসী গেলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই বারাণসী তাঁকে আবারও লোকসভায় যাওয়ার রাস্তা করে দিয়েছে। শুধু তাই নয় গতবারের চেয়ে এবার এক লাখ বেশি ভোট পেয়েছেন মোদি। আর তাই নির্বাচনের ফল প্রকাশের পরেই তিনি জানিয়েছিলেন কাশির বাসিন্দাদের ধন্যবাদ জানাতে যাবেন। সে মতোই সোমবারের এই সফর।

বারাণসীতে গিয়ে কাশি বিশ্বনাথ মন্দিরে পুজো দিলেন মোদি। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। শহরে পৌঁছে কাশি বিশ্বনাথ মন্দিরে গিয়ে প্রার্থনা করেন নমো। হেলিকপ্টারে শহররে পুলিশ লাইনে এসে পৌঁছন তিনি। সেখান থেকে সড়ক পথে যান মন্দিরে। তাঁর সফর ঘিরে নিরাপত্তার বাড়তি বন্দোবস্ত থাকছে।

পুজো দেওয়ারও কর্মসূচি ছিল তাঁর। ঠিক যেভাবে গতবার নির্বাচনে জেতার পর পুজো দিয়েছিলেন এবারও সেভাবেই পুজো দেন তিনি। অনুগামীরা যাতে পুজো দেখতে পান তার জন্য মন্দিরের বাইরে এলইডি স্ক্রিন বসানো হয়েছে। বিজেপির পতাকায় ঢাকা পড়েছে গোটা শহর।

প্রধানমন্ত্রী সফর ঘিরে উৎসাহ রয়েছে চোখে পড়ার মতো। কাশি বিশ্বনাথ মন্দিরের পুরোহিত আচার্য অশোক সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে আগে জানান আমাদের সৌভাগ্য যে প্রধানমন্ত্রী এখানে এসে পুজা দেবেন। ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে এবং উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন জিতেও একইভাবে পুজো দিয়েছিলেন তিনি। বাবা বিশ্বনাথের সবচেয়ে বড় ভক্ত প্রধানমন্ত্রী। পুজা শুরুর আগেই নিজেকে ঈশ্বর চেতনায় য়োজিত করেন তিনি। আপনারা খেয়াল করলে তাঁর চোখের জল দেখতে পাবেন।

প্রধানমন্ত্রী পদে মোদীর শপথ বৃহস্পতিবার সন্ধে ৭টায়। এবার ৪ লক্ষ ৭৯ হাজার ভোটে এখান থেকে জয়ী হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। গতবারের চেয়ে এই ব্যবধানটা প্রায় এক লক্ষের মতো বেশি। নির্বাচনে জয়ের পরই তিনি জানিয়েছিলেন কয়েকটি কাজ সারা হয়ে গেলেই গুজরাটে গিয়ে মা হীরাবেনের সঙ্গে দেখা করবেন। তারপর আসবেন এখানে। আর সেভাবেই আজ কাশি এলেন মোদী।

নির্বাচনের আগে মেগা রোড শো হয়েছিল বারাণসীতে। সেই রোড শোয়ের খরচ ঘিরে প্রশ্ন তুলেছিলেন বিরোধীরা। কিন্তু শেষমেশ গোটা দেশের মতো গেরুয়া ঝড় বয়েছে বারাণসীতেও।









Leave a reply