যমুনা টিভির ক্যামেরাপারসনের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানবন্ধন

|

বগুড়া ব্যুরো
যমুনা টেলিভিশনের বগুড়া ব্যুরো অফিসের ক্যামেরাপারসন শাহনেওয়াজ শাওনের ওপর হামলায় জড়িতদের গ্রেফতারে ৪৮ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা। সোমবার দুপুরে বগুড়া টেলিভিশন রিপোর্টার্স ইউনিটি ও বগুড়া টেলিভিশন ক্যামেরাপার্সন অ্যাসোসিয়েশনের যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও সমাবেশ থেকে এই আল্টিমেটাম বেঁধে দেন তারা। নির্ধারিত সময় দোষীরা গ্রেফতার না হলে বুধবার অবস্থান কর্মসূচিরও ডাক দিয়েছেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

সোমবার শহরের সাতমাথা চত্ত্বরে আয়োজিত এই কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন টেলিভিশন রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি আবদুর রহিম বগরা। ইউনিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেরুল সুজনের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম মহাসচিব জিএম সজল, বগুড়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল আলম নয়ন, বগুড়া সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আমজাদ হোসেন মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক জেএম রউফ, টেলিভিশন রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক চপল সাহা, নির্বাহী সদস্য ফরহাদ শাহী, বগুড়া ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মমিনুর রশিদ সাইন ও ক্যামেরাপার্সন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিক।

বক্তারা পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় একজন গণমাধ্যমকর্মীর ওপর এমন হামলায় জড়িতেদর গ্রেফতারে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেন। নির্ধারিত সময়ে মধ্যে প্রশাসন জড়িতদের গ্রেফতারে ব্যর্থ হলে আগামী বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় সাতমাথা চত্ত্বরে গণমাধ্যমকর্মীদের অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হবে বলেও জানান বক্তারা। গণমাধ্যমকর্মীদের এই কর্মসূচিতে সংহতি জানিয়ে মানববন্ধন ও সমাবেশ যোগ দেয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট ও সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজনের বগুড়া জেলা কমিটি।

রোববার বিকেলে শহরের সরকারি উডবার্ন গণগ্রন্হাগারের সামনে ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরুর ওপর ছাত্রলীগের হামলার সময় ভিডিও ধারণ করতে গেলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা শাওনের ওপর চড়াও হন। তারা শাওনকে কিল-ঘুষি মারতে থাকেন এবং তার কাছে থেকে ক্যামেরা ছিনিয়ে নিয়ে ভাঙচুরের চেষ্টাও চালান।









Leave a reply