খাজার ব্যাটিং তাণ্ডবে অস্ট্রেলিয়ার জয়

|

বিশ্বকাপের আগে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন উসমান খাজা। সাম্প্রতিক সময়ে ধারাবাহিক রান করার সুবাদে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম মুসলিম ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বকাপে সুযোগ পেয়েছেন তিনি।

বিশ্বকাপের ঠিক আগে প্রস্তুতি ম্যাচে সোমবার শ্রীলংকার বিপক্ষে ফিল্ডিংয়ের সময়ে পায়ে বল গেলে আহত হন খাজা। আর সেই চোট নিয়েই ব্যাটিং তাণ্ডব চালান তিনি। তার ব্যাটে ভর করে লংঙ্কানদের বিপক্ষে ৩১ বল আগেই ৫ উইকেটে জয় পায় অস্ট্রেলিয়া।

দলের জয়ে ১০৫ বলে তিনটি চারের সাহায্যে ৮৯ রান করেন উসমান খাজা। এছাড়া ৩৬, ৩৪ ও ৩২ রান করেন গ্ল্যান ম্যাক্সওয়েল, শন মার্স ও মার্কু স্টইনিস।

সোমবার শ্রীলংকার বিপক্ষে ২৪০ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনীতে ১৬ রান যোগ করেই সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। অধিনায়কের বিদায়ের পর থেকেই বাড়তি দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেন উসমান খাজা।

দ্বিতীয় উইকেটে শন মার্সের সঙ্গে গড়েন ৮০ রানের জুটি। ৪৬ বলে ৩৬ রান করে মার্স আউট হলেও ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে যান উসমান।

এরপর জুটি বাধেন অলরাউন্ডার গ্ল্যান ম্যাক্সওয়েলের সঙ্গে। এই জুটিতে গড়েন ৬৫ রান। ৩৬ বলে ৩৬ রান করে ম্যাক্সওয়েল আউট হলেও অনবদ্য ব্যাটিং চালিয়ে যান খাজা।

পাঁচ নম্বর পজিশনে ব্যাটিংয়ে নামা মার্কু স্টইনিসের সঙ্গে গড়েন ৪২ রান। ৩০ বলে ৩২ রান করে স্টইনিস আউট হলেও ক্রিজে অবিচল ছিলেন খাজা।

দায়িত্বশীল ব্যাটিং করে সেঞ্চুরির পথেই ছিলেন খাজা। তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগার স্পর্শ করতে তার প্রয়োজন ছিল মাত্র ৯ রান। দল জয় থেকে ২২ রান দূরে থাকতেই আউট হন খাজা। তার আগে ১০৫ বলে করেন ৮৯ রান।

খাজার বিদায়ের পর অ্যালেক্স কেরি ও পেট কামিন্স দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দিয়ে সাজঘরে ফেরেন।

এর আগে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২৩৯ রানে গুটিয়ে যায় শ্রীলংকা। বিশ্বকাপের প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচের মতো দ্বিতীয় খেলায় আজও ব্যাটিং বিপর্যয় লংঙ্কানদের।

আগের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৩৩৯ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ২৫১ রানে অলআউট হয় শ্রীলংকা।

সোমবার ইংল্যান্ডের সাউদাম্পটনের দ্য রোজ বোলে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় শ্রীলংকা।

আগে ব্যাটিংয়ে নেমে দুই উইকেটে ১১০ রান করা শ্রীলংকা এরপর সময়ের ব্যবধানে উইকেট হারায়। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানোর ম্যাচে প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করেন ওপেনার লাহিরু থিরিমান্নে ও সাত নম্বর পজিশনে ব্যাটিংয়ে নামা ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। ৬৯ বলে সাত চারের সাহায্যে ৫৬রান করেন থিরিমান্নে।

ইনিংস শেষ হওয়ার ৮ বল আগে আউট হন সিলভা। তার আগে ৪১ বলে চারটি চারের সাহায্যে ৪৩ রান করেন ডি সিলভা। এছাড়া ২৪ রান করেন কুশল মেন্ডিস, ২৭ রান করেন থিসেরা পেরেরা। ২১ রান করেন জীবন মেন্ডিস।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ, উইকেটকিপার অ্যালেক্স কেরি এবং ওপেনার উসমান খাজা ছাড়া বাকি আটজন বোলিং করে সফল হন।

অ্যাডাম জাম্পা নেন দুই উইকেট। এছাড়া মিসেল স্টার্ক, পেট কামিন্স, রিচার্ডসন, ম্যাক্সওয়েল, মার্কু স্টইনিস, নাথান লায়ন ও স্টিভ স্মিথ একটি করে উইকেট শিকার করেন।









Leave a reply