সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য ২ টাকায় ঈদের পোশাক!

|

ঈদে একটি নতুন জামা ভাগ্যে জুটে না এমন শিশুর সংখ্যা বাংলাদেশে কত- তার কোনো পরিসংখ্যান নেই। তবে ধারণা করা যায়, সংখ্যাটা অনেক বড়। সুবিধাবঞ্চিত এসব শিশুদের একটি ক্ষুদ্র অংশের জন্য হলেও নতুন জামার ব্যবস্থা করছে ‘স্বপ্নের দোকান’ নামের একটি উদ্যোগ। বিভিন্ন কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুণদের উদ্যোগটি গত বছর দুয়েক ধরে চললেও এবার বেশ ভালোভাবেই সাড়া পেয়েছে।

২০০/৩০০ টাকা দিয়ে পোশাক কিনে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের কাছে সেগুলো ২ টাকা বা ৫ টাকায় বিক্রি করা হয়। লাইন ধরে সেগুলো কিনেন দ্ররিদ্র ঘরের বাচ্চারা। নতুন জামা পেয়ে আনন্দের আর সীমা থাকে না তাদের।

ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন জেলায় এই উদ্যোগটি ছড়িয়েছে। সর্বশেষ চট্টগ্রামের ইউনিভার্সিটি অব সাইন্স এন্ড টেকনোলোজির কয়েকজন শিক্ষার্থী নিজেদের মধ্য থেকে তোলা ২০/২৫ হাজার টাকা দিয়ে পোশাক কিনে সেগুলো বাচ্চাদের কাছে ২, ৫ এবং ১০ টাকায় বিক্রি করেছেন। সামাজিক মাধ্যমে তাদের পোশাক বিতরণের ছবি অনেকে শেয়ার করে প্রশংসা করছেন।

তবে এই ‘স্বপ্নের দোকান’ এর উদ্যোগটি প্রথম শুরু করেন একেএম নাইম জামান নামে এক তরুণ। ব্রাক ইউনিভার্সিটির সাবেক এই ছাত্র বর্তমানে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কাজ করছেন। ২০১৭ সালে তার প্রতিষ্ঠিত ‘স্বপ্নের দোকান’ এখন দেশের বিভিন্ন স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীসহ দেশ-বিদেশের বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষের অনুদানে প্রতি বছর পথশিশুদের মাঝে ঈদবস্ত্র বিতরণ করে। এবারের ঈদেও বেশ কয়েকটি জেলায় উৎসবমুখর পরিবেশে শিশুদের মধ্যে নতুন জামা বিতরণ করা হয়েছে।









Leave a reply