বগুড়ায় ছাত্রদল সভাপতিকে পেটালো নৌকার সমর্থকরা

|

বগুড়া ব্যুরো
বগুড়া-৬ আসনের উপ-নির্বাচনে প্রচারণার প্রথম দিনেই নৌকা প্রতীকের সমর্থকদের হামলার মুখে পড়েছেন বিএনপি নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার দুপুরে শহরের সাতমাথা এলাকায় ধানের শীষ প্রতীকের প্রচারণার সময় এই হামলার ঘটনা ঘটে। এসময় নৌকা সমর্থকদের ধাওয়ায় বিএনপি নেতাকর্মীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে গেলে বেধড়ক মারপিটের শিকার হন জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আবু হাসান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার প্রতীক বরাদ্দের পর দুপুরে শহরের জিরোপয়েন্ট সাতমাথা এলাকায় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা ধানের শীষে ভোট প্রার্থনা শুরু করেন। তাদের প্রচারণা শুরুর মিনিট দশেকের মধ্যেই নৌকা প্রতীকের ২০/২৫ জন্য সমর্থক লাঠি হাতে ধাওয়া করেন বিএনপি নেতাকর্মীদের। একপর্যায়ে তারা ছাত্রদল সভাপতি আবু হাসানকে বেধড়ক মারপিট শুরু করেন। আত্মরক্ষার্থে হাসান সাতমাথা পুলিশ বক্সের ভেতরে আশ্রয় নিলে তাকে সেখান টেনে বের করা আবারো মারপিট করেন নৌকার সমর্থকরা।

জেলা বিএনপি সদস্য আলী আজগর তালুকদার হেনা যমুনা নিউজকে জানান, প্রতীক বরাদ্দের পর নির্বাচনী বিধি মেনেই তারা ধানের শীষের পক্ষে প্রচারণায় নেমেছিলেন। কিন্তু শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর প্রচারণায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর সমর্থকরা এমন ন্যাক্কারজনক হামলা চালিয়েছে। এমন পরিস্থিতি বজায় থাকলে এই উপ-নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হবে না বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তিনি।

আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী টি জামান নিকেতা জানান, দলীয় কার্যক্রম শেষে তারা ওই পথ দিয়ে ফিরছিলেন। এসময় তার সমর্থককে ক্ষুদ্র একটি অংশের সঙ্গে বিএনপি নেতাদের বাকবিতণ্ডার কথা শুনেছেন। সেখানে মারপিট বা হামলার ঘটনা ঘটেছে কী না তা দলীয়ভাবে খতিয়ে দেখা হবে।

আগামী ২৪ জুন বগুড়া-৬ আসনের উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবার কথা রয়েছে। আওয়ামী লীগ-বিএনপি-জাতীয় পার্টিসহ মোট ৭ জন প্রার্থী লড়বেন এই নির্বাচনে। ডিসেম্বরের নির্বাচনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই আসনে জয়লাভ করলেও তিনি শপথ না নেয়ায় সম্প্রতি আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়।









Leave a reply