বাস ভাড়া নিয়ে বিতর্ক, যাত্রীকে পিষে মারলো ড্রাইভার

|

গাজীপুর প্রতিনিধি
গাজীপুরের সদর উপজেলার বাঘের বাজারে ভাড়া নিয়ে বিতর্কের জের ধরে এক যাত্রীকে বাস চাপা  দিয়েছে আলম এশিয়া পরিবহনের একটি বাস। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান যাত্রী সালাউদ্দিন আহমেদ (৩৫)।
রোববার সকাল সাড়ে দশটার দিকে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সালাউদ্দিন ঢাকার আলুবাজারের মৃত শাহাবউদ্দিনের ছেলে। সে গাজীপুর সদর উপজেলার বাঘের বাজার এলাকার আতাউর রহমান আতা  মেম্বারের বাড়িতে স্ত্রী সহ ভাড়া থাকে। স্থানীয় স্কটেক্স এ্যাপারিয়াল কারখানার গাড়ী চালক ছিল।
নিহতের স্ত্রী পারুল আক্তারের বলেন, সে ও তার স্বামী সালাউদ্দিন ঈদের ছুটিতে ময়মনসিংহে তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে যান গত পরশু। রোববার তারা ময়মনসিংহ থেকে আলম এশিয়া গাড়িযোগে বাড়িতে ফিরছিলেন। পথে তার স্বামীর সাথে ভাড়া নিয়ে পরিবহনের সহকারীর সাথে বাক-বিতন্ডা হয়।
মাওনা হাইওয়ে থানার ওসি দেলোয়ার হুসেন বলেন, বাস সহযোগীকে ‘ড্রাইভার’ পরিচয় দিয়ে সালাউদ্দিন ভাড়া কিছু টাকা কম রাখার জন্য অনুরোধ করেন। এই নিয়ে সালাউদ্দিন ও তার স্ত্রীর সঙ্গে চালকের সহযোগীর বাকবিতন্ডা  হয়। এক পর্যায়ে চালকের সহযোগী লাথি মেরে সালাউদ্দিনকে ফেলে দেবে বলে হুমকি দেয়। ভয় পেয়ে  সালাউদ্দিন তার ভাই জামালকে টেলিফোনে বাঘের বাজার বাসস্ট্যান্ডে এসে দাঁড়াতে বলেন। পরে জামাল আরো ৫-৬ জন লোক নিয়ে বাঘের বাজার দাঁড়িয়ে থাকেন। আলম এশিয়ার দ্রুতগামী বাসটি স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে থাকা স্বজনরা কিছু বোঝে উঠার আগেই লাথি মেরে সালাউদ্দিনকে বাস থেকে ফেলে দেয়। কিন্তু তার স্ত্রীকে নিয়ে বাস চলে যেতে থাকে। স্ত্রীকে না নামিয়ে বাস চলে যেতে থাকলে সালাউদ্দিন সড়ক থেকে উঠে গাড়ির সামনে গিয়ে গতিরোধ করার চেষ্টা করেন। এ সময় স্বজনদের সামনে চালক সালাউদ্দিনকে পিষে চলে যায়।
ওসি আরও জানান, এ ঘটনায় জয়দেবপুর থানা পুলিশের সহায়তায় গাড়িটি আটক করা হয়। তবে চালক ও তার সহকারীরা পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা যায়নি। এই ঘটনায় হত্যা মামলা রুজু হয়েছে।









Leave a reply