ধারাভাষ্যকারদের সতর্কতায় আইসিসিকে কড়া জবাব দিলো হোল্ডিং

|

বিশ্বকাপের চলতি আসরে শুরু থেকেই আম্পায়ারিংয়ের মান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সবচেয়ে বেশি সমালোচনা হচ্ছে অস্ট্রেলিয়া-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচের আম্পায়ারিং নিয়ে। ঐ ম্যাচে আম্পায়ারদের ভুল সিদ্ধান্ত ছিল চোখে পড়ার মতো। এ কারণে ক্যারিবীয়দের সে ম্যাচে মাশুলও দিতে হয়েছে বেশ।

ধারাভাষ্যকার হিসেবে সে ম্যাচের আম্পায়ারিং নিয়ে কড়া সমালোচনা করেছিলেন মাইকেল হোল্ডিং। আম্পায়াররা ক্রিকেটের সর্বোচ্চ পর্যায়ের আসরে অপেশাদার আচরণ করছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

অস্ট্রেলিয়া-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচে গেইলের আউটটিই ছিল দৃষ্টিকটু। যে বলে গেইল আউট হন তার আগের বলে বিশাল ‘নো’ হওয়ার পরও তা চোখে পড়েনি আম্পায়ারদের। পরের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে ফিরতে হয় গেইলকে। এমন আম্পায়ারিংকে ‘জঘন্য’ বলেছিলেন হোল্ডিং।

এই ঘটনার পরেই নড়েচড়ে বসে আইসিসি। সব ধারাভাষ্যকারদের সতর্ক করে মেইল পাঠায় তারা। আইসিসির সতর্কবার্তা পেতে হয়েছে হোল্ডিংকেও। আর এ ঘটনায় আইসিসিকে পাল্টা জবাব দিয়েছেন সাবেক ক্যারিবীয় ফাস্ট বোলার।

মেইলের জবাবে হোল্ডিং বলেন, ‘ওই আম্পায়াররা যদি ফিফার অফিশিয়াল হতো, তবে এতদিনে তাদের ব্যাগ গুছিয়ে বাড়ি চলে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হতো। তাদের আরেকটি বিশ্বকাপ ম্যাচ পরিচালনার সুযোগ দেওয়া হতো না। একজন সাবেক ক্রিকেটার হিসেবে আমি মনে করি, ক্রিকেট বিশ্বকাপ আরও বেশি পেশাদার হওয়া উচিত। কিন্তু এখানে ভুল করা সত্ত্বেও তাদের নিরাপদে রাখার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’









Leave a reply