নাটোরে সাক্ষীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় অন্ধকারে পুলিশ

|

নাটোরে হত্যা মামলার সাক্ষীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় এখনও মামলা হয়নি। কাউকে আটকও করতে পারেনি পুলিশ।

আদালতে সাক্ষ্য দিতে যাওয়ায় পথে গতকাল গুরুদাসপুরের যোগিন্দ্র নগর বাজার এলাকায় জালাল উদ্দিনের ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা।

কুপিয়ে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে তার ডান হাত। কেটে দেয়া হয় পায়ের রগ।

রাজশাহী মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় জালালের।

স্বজনরা জানায়, ২০১৩ সালে যোগিন্দ্র নগর গ্রামের সফুরা খাতুনকে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এই মামলার স্বাক্ষী জালাল উদ্দিন আদালতে সাক্ষ্য দিতে বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) সকালে বাড়ি থেকে বের হন। যোগিন্দ্র নগর বাজারের কাছে পৌঁছালে তার ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা।

এরপর গুরুতর আহত অবস্থায় জালালকে প্রথমে নেয়া হয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয় রাজশাহী মেডিকেলে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে তার মৃত্যু হয়।









Leave a reply