বাংলাদেশিদের মধ্যে বিদেশে রাজনৈতিক আশ্রয় চাওয়ার প্রবণতা বাড়ছে

|

উন্নত দেশে নিরাপদ বসবাসের জন্য রাজনৈতিক আশ্রয় চাওয়ার প্রবণতা বাড়ছে বাংলাদেশিদের মধ্যে। গেল বছর বাংলাদেশের ২৮ হাজার ৪৮৮ নাগরিক বিভিন্ন দেশে এ সুযোগ চেয়েছে। জানা গেছে, আবেদন যেমন বাড়ছে, তেমনি প্রত্যাখ্যানের হারও বেড়েছে। সবচেয়ে বেশি আবেদন জমা পড়ছে ফ্রান্সে।

প্রতিদিনই পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে পাড়ি জমাচ্ছে অনেক বাংলাদেশি। জীবিকার পাশাপাশি আছে, উন্নত জীবনের স্বপ্ন। বৈধ বা অবৈধ পথে দেশ ছাড়া অনেকেই স্থায়ীভাবে থেকে যেতে চান উন্নত দেশে। এজন্য বেছে নিতে হয় আইনি লড়াইয়ের পথ।

নির্যাতন-নিপীড়ন থেকে বাঁচতে সংঘাতকবলিতদের মানবিক কারণে রাজনৈতিক আশ্রয় বা অ্যাসাইলাম দিয়ে থাকে বিভিন্ন দেশ। অনেক বাংলাদেশিও নিচ্ছেন এ সুযোগ। ইদানিং আরও বেড়েছে এ প্রবণতা। জাতিসংঘের হিসাবে, ৫ বছরে বিভিন্ন দেশে রাজনৈতিক আশ্রয়ের আবেদন করেছে, এক লাখ ৬০ হাজার ৭৩৭ বাংলাদেশি। আগের ৫ বছরের তুলনায় এ সংখ্যা দ্বিগুণেরও বেশি। অর্থাৎ, দিনে গড়ে ৮৮ জন। প্রশ্ন হচ্ছে, কেন এই পথটিকেই বেছে নেন তারা।

রাজনৈতিক আশ্রয়ের জন্য, বাংলাদেশিদের প্রথম পছন্দ ইউরোপ। গেল ৫ বছরে, সর্বোচ্চ ৩৪ হাজার ১১৭ বাংলাদেশি আবেদন করে, ফ্রান্সে। প্রায় সমান সংখ্যক আবেদন পড়ে, পাশের দেশ ইতালিতে।

ইউএনএইচসিআর-এর পরিসংখ্যান অনুসারে, রাজনৈতিক আশ্রয়ের জন্য বাংলাদেশিদের তৃতীয় পছন্দের দেশ দক্ষিণ আফ্রিকায় ৫ বছরে আবেদন জমা পড়েছে ২৪ হাজারের বেশি।

যুক্তরাজ্য- যুক্তরাষ্ট্রেও বাড়ছে বাংলাদেশি অ্যাসাইলাম প্রার্থী। যদিও বাংলাদেশে রাজনৈতিক সমস্যা নেই- এমন যুক্তিতে বাতিল হচ্ছে, বেশিরভাগ আবেদন।









Leave a reply