‘বিশ্বনবীকে জানা ও অনুসরণ তার প্রতি ভালবাসা প্রকাশের মাধ্যম’

|

যার আগমনে বিশ্বমানবের মহামুক্তি, যার কথায় এক আল্লাহর আনুগত্য- তিনি বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) । আর এই মহামানবের জন্মদিন পালনও হয়ে ওঠে ইবাদতের অংশ। তাইতো পৃথিবীর প্রতিটি মসজিদে চলে বিশেষ আলোচনা, নবীজির জীবন দর্শন বর্ণনাসহ নানা আয়োজন।

আজ ১২ রবিউল আউয়াল। বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) এর জন্ম ও ওফাত দিবস। ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের সাথে ঈদে মিলাদুন্নবী পালিত হচ্ছে । ইসলামী চিন্তাবিদদের মতে, বিশ্বনবীকে সঠিকভাবে জানা এবং তাকে অনুসরণই তার প্রতি ভালবাসা প্রকাশের উপযুক্ত মাধ্যম।

শুক্রবার মাগরিবের পরপর শুরু হয় ১২ রবিউল আউয়াল। নামাজের পাশাপাশি দরুদ শরীফ পাঠ, জিকির-আজকার, কোরআন শরীফ তেলওয়াতসহ ধর্মীয় নানা আয়োজনে মহানবীকে স্মরণ করছেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা।

 

বিশ্বনবীর আগমনের দিনে গোটা মুসলিম বিশ্বে উৎসবের আমেজ। ইসলামী চিন্তাবিদদের মতে, আনন্দের বহি:প্রকাশের ক্ষেত্রেও ধর্মে দিক নির্দেশনা আছে। দিবসটি উপলক্ষে সারাদেশে ওয়াজ মাহফিল, সেমিনার, হামদ-নাত, বইমেলাসহ পক্ষকালব্যাপী নানা আয়োজন করেছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।









Leave a reply