‘প্রিয়া সাহার বক্তব্য তার নিজস্ব, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাথে কোনো সম্পর্ক নেই’

|

প্রিয়া সাহার বক্তব্যের সাথে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের কোনো সম্পর্ক নেই বলে দাবি করেছে সংগঠনটি। প্রিয়া সাহার বক্তব্য তাঁর নিজস্ব। আজ সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ঘোষণা দেয় সংগঠনটি।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, প্রিয়া সাহা সাংগঠনিক কোন সিদ্ধান্ত বা দায়িত্ব নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যায় নি, যা করেছেন নিজের দায়িত্ব করেছেন। এর সাথে সংগঠনের কোন সম্পর্ক নেই।

সংগঠনটির পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়, প্রিয়া সাহা যা করেছেন তা সংগঠন বিরোধী কর্মকান্ড । তাই সংগঠন বিরোধী কাজ করায় সংগঠন থেকে প্রিয়া সাহাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। তবে তিনি ঢাকায় ফিরলে তার বক্তব্য শুনে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলেও সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

এরআগে গত ২২ জুলাই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের ওপর নির্যাতনের কথা বলে সহায়তা চাওয়ায় প্রিয়া সাহাকে সংগঠন থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ।

উল্লেখ্য, গত ১৬ জুলাই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ধর্মীয় স্বাধীনতা ও সহিষ্ণুতা বিষয়ে বিশ্বের বিভিন্ন ধর্মীয় নেতা ও প্রতিনিধিদের সঙ্গে হোয়াইট হাউজে কথা বলেন।

এতে বাংলাদেশি পরিচয়ে প্রিয়া সাহা উপস্থিত হয়ে ট্রাম্পের কাছে অভিযোগ করেন, আমি বাংলাদেশ থেকে এসেছি। বাংলাদেশে ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান নিখোঁজ রয়েছেন। দয়া করে আমাদের লোকজনকে সহায়তা করুন। আমরা আমাদের দেশে থাকতে চাই।









Leave a reply