পরকীয়ার জেরে হত্যা, ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

|

মনোয়ার হোসেন জুয়েল, চাঁপাইনবাবগঞ্জ
চাঁপাইনবাবগঞ্জে পরকিয়ার জেরে হত্যা মামলায় ৩ জনকে মৃত্যুদণ্ড ও এক নারীসহ চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক শওকত আলী আসামিদের উপস্থিতে এ আদেশ দেন।

রায়ে ফাঁসি ও যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তদের সকলকে ১ লক্ষ টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে। মামলার রায়ে ৮ জনকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়।

নিহত রাকিব আলী ওরফে বাবু শিবগঞ্জ উপজেলার ধাইনগর ইউনিয়নের পারনপুর বামুনগ্রামের নাইমুল ইসলামের ছেলে।

রায় ঘোষণাকালে আদালত তাঁর পর্যবেক্ষনে জানান, মূলত নিহতের স্ত্রী সায়েরা খাতুনের সাথে মামলার ১ নং আসামি মেহরাব হোসেন বাচ্চুর পরকীয়া প্রেমের জেরে রাকিব আলী বাবুকে পরিকল্পিত ও নৃশংসভাবে হত্যা করে মরদেহ নদীতে ফেলে দেয়া হয়।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২৯ মার্চ বাড়ি থেকে রাত ৯টার দিকে চা খাওয়ার জন্য রাকিব আলী ওরফে বাবু পাশ্ববর্তী মহেষপুর বাজারে যায়। এরপর থেকেই সে নিখোঁজ হয়। পরের দিন সকালে মহানন্দা নদীতে জেলেদের জালে বাবুর মরদেহ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় ওইদিন ৩০ মার্চ ২০১৫ শিবগঞ্জ থানায় বাবুর পিতা নাইমুল ইসলাম বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

পরে ২০১৬ সালের ১৩ জুলাই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক আব্দুল করিম আদালতে ১৫ জনকে অভিযুক্ত করে এই মামলার চার্জশিট দাখিল করেন। আইনি প্রক্রিয়া শেষে আজ দুপুরে মামলার রায় দেন আদালত।

মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলো, মেহেরাব হোসেন বাচ্চু, জামাল উদ্দিন ও হয়রত আলী। যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত আসামিরা হলো, রাকিব ওরফে বাবুর স্ত্রী সায়েরা খাতুন, আসলাম, মহবুল ও মিটুল। মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত ও যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত আসামীরা সকলেই শিবগঞ্জ উপজেলার পরানপুর-বলিহারপুর গ্রামের বাসিন্দা।









Leave a reply