প্যাথলজিস্ট ছাড়াই রোগ নির্ণয়, সাড়ে ৭ লাখ টাকা অর্থদণ্ড

|

বগুড়া ব্যুরো:

প্যাথলজিস্ট ছাড়াই রোগ নির্ণয়ের পরীক্ষা করাসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে বগুড়ার ৩ বেসরকারি হাসপাতালকে সাড়ে ৭ লাখ টাকার অর্থদণ্ড দিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত।

বুধবার রাতে অভিযান শেষে শহরের রাবেয়া নার্সিং হোম, নাজমা মেডিমেট এবং নাজমা জেনারেল হাসাপাতালকে এই অর্থদণ্ড দেন আদালত।

র‌্যাব-১২’র স্পেশাল কোম্পানি বগুড়ার কমান্ডার মেজর এসএম মোর্শেদ হাসান ও র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে বুধবার দুপুর ১২টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে এই ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চলে।

মেজর মোর্শেদ যমুনা নিউজকে জানান, এই বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন অনিয়ম চলে আসছে। হাসপাতালগুলোর ডায়াগনস্টিক সেন্টার থাকলেও সেগুলোর কোনো অনুমোদন বা নিবন্ধন নেই এবং নিবন্ধিত প্যাথলজিস্ট না রেখে এসব ল্যাবে ডিপ্লোমা শিক্ষার্থীদের দিয়ে রোগীদের রোগ নির্ণয়ের পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়। এছাড়া ড্রাগ লাইসেন্স না থাকলেও তারা দেদারছে রোগীদের কাছে দেশী-বিদেশী ওষুধ বিক্রি করছেন দীর্ঘদিন ধরেই। এছাড়া অপারেশন থিয়েটারসহ হাসপাতাল পরিচালনা অনেক বিধি-ই তারা ভঙ্গ করেছেন

মেজর মোর্শেদ আরো জানান, এসব অনিয়মের প্রেক্ষিতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন মোতাবেক রাবেয়া নার্সিং হোমকে ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা, নাজমা জেনারেল হাসপাতালকে ২ লাখ টাকা এবং নাজমা মেডিমেটকে ১ লাখ ২৫ হাজার টাকার অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।









Leave a reply