ডেঙ্গু প্লাস-মাইনাস

|

তাহমিদ অমিত:

একেক সময় আমরা একেকটা আতঙ্কে ভুগি। এখন ‘ডেঙ্গু আতঙ্ক’ চলছে। ডেঙ্গু জ্বর হলে কী করণীয়, প্রতিরোধে কী করা উচিত, এসব নিয়ে অনেক ধরনের কার্যকর পরামর্শ মিলছে। ফলে, সে আলোচনায় যাবো না। আমি শুধু কিছু পয়েন্ট তুলে ধরতে চাই।

  • ইদানীং দেখা যাচ্ছে, একই পরিবারের সদস্যরা ২/১ দিনের ব্যবধানে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। চাইলে খুব সহজে সেই পরিবার ঢাকার কোন এলাকায় থাকতো সেটা বের করা সম্ভব। এরকম ১ হাজার পরিবারের এলাকায় কোনো না কোনো জায়গায় ডেঙ্গুর উৎপত্তিস্থল আছে। সেটা ধ্বংস করা খু্ব কঠিন কিছু না।
  • একটি সমন্বিত ম্যাপ তৈরি করা যায়। কোন এলাকায় ডেঙ্গু বেশি হচ্ছে সেটাকে ‘রেড জোন’ মার্ক করা, এভাবে ‘ইয়েলো জোন’ ও ‘সেফ জোন’ চিহ্নিত করা। খুঁজে বের করার চেষ্টা করা ডেঙ্গু কেনো বেড়েছে। ‘রেড জোন’ এলাকায় সমস্যাটা কী ছিল। এভাবে রাস্তায় রাস্তায় অকার্যকর কীটনাশকের ধোঁয়া তৈরি করে ডেঙ্গু প্রতিরোধ সম্ভব না। এটা জাস্ট আইওয়াশ।
  • প্রতিটি ওয়ার্ডে কমিশনার আছে, থানা আছে, সরকারি অফিস আছে। তাই, ওয়ার্ড ভিত্তিক ডেঙ্গুর উৎপত্তিস্থল ধ্বংস কঠিন কাজ নয়। তবে, মোটা দাগে কাজ করলে ফলাফল শুন্য। সুনির্দিষ্টভাবে কাজ করতে হবে।
  • ধরুন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৮টি হল। এখানে যদি ডেঙ্গু প্রতিরোধে শুধু টিএসসিতে ফগার মেশিন ব্যবহার করা হয় তাহলে তা কার্যকর হবে না। বের করার চেষ্টা করতে হবে কোন হলে, কোন ফ্লোরে, কোন বিল্ডিংয়ে বেশি রোগী। তার আশপাশে নিশ্চয় ডেঙ্গুর লার্ভা আছে। সেটা খুঁজে বের করে ধ্বংস করতে হবে। যখন ছোট ছোট এলাকা ধরে কাজ করা হবে, মানুষ বিশ্বাস করবে। প্রত্যেকে সচেতন হওয়ার ম্যাসেজটাও পাবে।
  • ডেঙ্গু আমাদের দেখিয়ে দিয়েছে নিজের আশপাশ নোংরা করে আপনি মৃত্যুফাঁদ তৈরি করছেন। আপনার ছুঁড়ে দেয়া একটা কোকের বোতলের জমা পানিতে হয়তো আপনার সন্তানের মৃত্যুফাঁদ তৈরি হচ্ছে। মনে রাখতে হবে জন্মদিনের পরদিনই ডেঙ্গুতে মারা যাওয়া ফুটফুটে স্কুল ছাত্র রাইয়ানের মৃত্যুর দায় আমার, আপনার, আমাদের। এমন দায় আমরা আরও নিবো?
  • সরকারকে ফাঁকি দেয়ার জন্য আপনি হয়তো খেলনার হেলমেট পড়লেন, কিন্তু যখন মাথাটা ফাটবে সেটা সরকারের না আপনার। আপনি সস্তা হেলমেট পড়ে আসলে কাকে ফাঁকি দিলেন? একটি চিপসের প্যাকেট কিংবা কোকের ক্যান হতে পারে আপনার সারা জীবনের কান্না।

আমাদের শিশুদের কথা চিন্তা করে আমরা সবাই যার যার জায়গা আরেকটু সচেতন হওয়ার চেষ্টা করলে কি খুব ক্ষতি হবে?

যমুনা অনলাইন: টিএ/টিএফ









Leave a reply