কুইন্স ইয়ং লিডার অ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন বাংলাদেশের আইমান-জায়বা

|

জীবনকে ইতিবাচকভাবে রূপান্তরে ভূমিকা রাখায় অনন্য সম্মানে ভূষিত হয়েছেন বাংলাদেশর তরুণ আইমান সাদিক ও জায়বা তাহিয়া। ২০১৮ সালের কুইন্স ইয়ং লিডারস অ্যাওয়ার্ড-এ বিজয়ী হিসেবে তাদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। ৩৭টি দেশের ৬০ জন পুরস্কার বিজয়ীদের তালিকায় বাংলাদেশ থেকে আছেন আইমান ও তাহিয়া।

কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর ১৮-২৯ বছর বয়সী তরুণদের মধ্যে এই পুরস্কার দেয়া হয় যারা তাদের দক্ষতা দিয়ে সমাজ ও মানুষের জীবনে ইতিবাচক রূপান্তরে নেতৃত্ব দিচ্ছে।

আইমান সাদিক বাংলাদেশে শিক্ষার বিস্তারে অবদান রাখছেন। তার প্রতিষ্ঠিত টেন মিনিটস স্কুল এমন একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম যেখানে ইন্টারেকটিভ ভিডিও, সরাসরি ক্লাশ নেয়া, কুইজ প্রতিযোগিতা, স্মার্ট বুকসহ নানা মাধ্যমে কিশোর-তরুণদের পাঠদান দেয়া হয়।

বর্তমানে এই বৃহৎ কর্মযজ্ঞে আইমানের সাথে আছে আরও ৫২ তরুণ। ৪০ মিলিয়ন সক্রিয় ব্যবহারকারী নিয়ে টেন মিনিটস স্কুলই বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় মুক্ত পাঠশালা।

অন্যদিকে জায়বা সমাজে নারীদের সমতা প্রতিষ্ঠা ও সহিংসতা নির্মূলে কাজ করে যাচ্ছেন। অপরাধবিজ্ঞান থেকে ডিগ্রি নিয়ে  পুলিশ বাহিনীতে গবেষণা করেন জায়বা, যেটি তাকে নারীদের সমস্যা গভীরভাবে বুঝতে সহায়তা করেছে।

এরপর থেকে নিম্নবিত্ত নারীদের সমস্যা নিয়ে কাজ করতে থাকে সে। ২০১৭-১৮ সালে ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামে তাকে ‘গ্লোবাল সেইপার’ হিসেবে নির্বাচিত করে। তরুণদের নিয়ে নানা ধরনের প্রকল্পের সাথে যুক্ত আছেন জায়বা। বিশেষ করে আত্মরক্ষামূলক প্রশিক্ষণ ও সাইক্লিং ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে নারীদের আত্মবিশ্বাসী করে তুলতে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি।

বিজয়ীরা যুক্তরাজ্যে ১ সপ্তাহের বিশেষ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশ নেবেন। পরে রানি এলিজাবেথের হাত থেকে গ্রহণ করবেন পুরস্কার।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply