ইমরানের বাসভবনে কী হচ্ছে!

|

সরকারি বাসভবনকে নাকি কমিউনিটি সেন্টার বানিয়ে ফেলেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান! মাঝেমাঝেই, নানা ধরনের পার্টি হচ্ছে হচ্ছে সেখানে। কয়েকদিন আগে তো আস্ত একটা বিয়ের অনুষ্ঠানই হয়ে গেলো তার বাসভবনে। এই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে অনেকেই ইমরান খানের সমালোচনা করেছেন। তাদের মন্তব্য, প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের আলাদা একটা গুরুত্ব রয়েছে। ইমরান সেটাকে খেলো করে দিচ্ছেন।

সম্প্রতি ইমরানের সরকারি বাসভবনে এক ব্রিগেডিয়ারের মেয়ের বিয়ের অনুষ্ঠান হয়েছে। সেই ব্রিগেডিয়ার ওয়াসিম ইফতেখার চিমা ইমরানের সামরিক সচিব। আড়ম্বরপূর্ণ সেই বিয়েতে লাখ লাখ রুপি ব্যয় করা হয়েছে। সেই বিয়ের অনুষ্ঠানের ছবি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লেই শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন, তাহলে কি প্রধানমন্ত্রীর বাড়ি এখন বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য ভাড়া দেওয়া হচ্ছে? অবশ্য কেউ কেউ আবার বলছেন, এটি ইমরান খানের উদার মানসিকতার প্রমাণ।

বিয়েবাড়ির আসর যে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে হবে একথা উল্লেখ করে আমন্ত্রিত ব্যক্তিদের কার্ড দিয়ে দাওয়াত দেওয়া হয়েছে। বিয়ের ছবিতে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকেও খোশমেজাজে দেখা গেছে।

প্রধানমন্ত্রীর পদে দায়িত্ব নেওয়ার পর ইমরান খান জানিয়েছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে তিনি একটি লাইব্রেরি খুলতে চান৷ বছর পেরিয়ে গেলেও লাইব্রেরি বানানোর উদ্যোগ চোখে পড়েনি। অনেকেই মজা করে বলছেন, ইমরান একেবারে বিশ্ববিদ্যালয় খুলে ফেলেছেন। সেখানে এখন নেয়া হচ্ছে সামাজিক বিজ্ঞানের ক্লাস।









Leave a reply