ঈদে হায়দ্রাবাদী খাসির মাংসে অতিথি আপ্যায়ন

|

একদিন বাদেই ঈদ। আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আশায় পশু কোরবানি করবেন মুসলমানরা। কোরবানি পশুর মাংস তিন ভাগ করতে হয়। এক ভাগ গরীবদের, আরেক ভাগ আত্মীয়-স্বজনদের ও অপর ভাগ নিজেদের জন্য রাখতে হয়।

এদিকে, ঈদে অতিথিদের আপ্যায়নে নতুন নতুন রেসিপি দিয়ে চমকে দিতে চান গৃহকর্ত্রীরা। সেই গৃহিনীদের সহায়তা করতে আমরা নিয়ে এসেছি নতুন একটি রেসিপি। খাসির হায়দ্রাবাদী মাংস। আসুন তাহলে দেখে নেই কীভাবে রান্না করবেন হায়দ্রাবাদী খাসির মাংস।

উপকরণ:

খাসির মাংস- ৫০০ গ্রাম
দই – ১ কাপ
আদা-রসুন বাটা – ১ চা চামচ
লাল মরিচগুঁড়ো – ১ চা চামচ
গরম মশলা গুঁড়ো – ১/২ চা চামচ
হলুদ গুঁড়া – ১/২ চা চামচ
ধনে গুঁড়া – ১ চা চামচ
জিরা গুঁড়া – ১ চা চামচ
তেজপাতা – ১টা
লবঙ্গ – ৫টি গোটা
গোলমরিচ – ৫টি
এলাচ – ৩-৪টি
দারচিনি – ১টি
পুদিনা পাতা – স্বাদ মতো
ধনেপাতা – স্বাদ মতো
কাঁচামরিচ (কুচনো) – ২ টি
গোটা জিরা – ১/২ চা চামচ
টমেটো সস – ১ টেবিল চামচ
ভাজা পেঁয়াজ – ১ কাপ
কারি পাতা – ৮টি
লবণ – স্বাদ মতো
তেল – ১ টেবিল চামচ
পানি – ১/২ কাপ

প্রণালি:
মাংসের টুকরো গুলোকে ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। দই, আদা-রসুন বাটা, লাল মরিচগুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, গরম মশলা গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, জিরে গুঁড়া ও লবণ ভালো মাংসের সাথে মিশিয়ে নিন।

এর ঘণ্টা খানেক পর মাংস ম্যারিনেট হয়ে গেলে একটি প্রেসার কুকারে তেল গরম করুন। তেলের মধ্যে জিরে, গোটা গরম মশলা, গোল মরিচ, তেজপাতা ও কারিপাতা দিয়ে ২ মিনিট মতো ভাজুন। এতে কাঁচা মরিচ ও টমেটো সস দিয়ে ১ মিনিট রান্না করুন।

এর মধ্যে ম্যারিনেট করা মটন টুকরোগুলো দিয়ে দিন। ভালো করে মিশিয়ে ৫-৬ মিনিট ভালো করে কষান। এতে কুচনো ধনেপাতা ও পুদিনা পাতা দিয়ে দিন। ২ মিনিট ভালো করে রান্না করুন। স্বাদমতো লবণ ও প্রয়োজন মতো পানি দিন। ভালো করে মিশিয়ে কাঠি বা খুন্তি দিয়ে নাড়ুন খেয়াল রাখবেন যেন মাংস ভেঙ্গে না যায়। এবার প্রেসার কুকারের ঢাকনা লাগিয়ে দিন। এরপর অপেক্ষা করুন। মাংস হয়ে গেলে আঁচ বন্ধ করে, পুরো বাস্পটা বেরিয়ে যাওয়ার জন্য আরো কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। শেষে ভাজা পেঁয়াজ ও আদা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।









Leave a reply