বিমানযাত্রীর অভিনব বেল্ট তল্লাশি পর বেরিয়ে এলো ৫০ লাখ টাকার ইয়াবা

|

অভিনব কায়দায় বিপুল পরিমাণ ইয়াবা পাচারের সময় হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। তার কাছ থেকে ১০ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়েছে। দেশের কোনো বিমানবন্দরে এ যাবৎকালে আটক হওয়া ইয়াবার সবচেয়ে বড় চালান এটি। ঢাকায় সরবরাহ করার জন্য কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে এই চালান আসে বলে জানিয়েছে পুলিশ। আটককৃত ইয়াবার বাজারমূল্য প্রায় ৫০ লাখ টাকা।

কক্সবাজার থেকে রোববার দুপুর সাড়ে ১২টায় নভোএয়ারের ফ্লাইট ভিকিউ-৯৩৪ এ করে ঢাকায় আসেন জসিম উদ্দিন নামের এই যাত্রী। সন্দেহজন গতিবিধির কারণে তাকে তল্লাশি ও জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন।

কোমরের বেল্ট থেকে ইয়াবা বের করার ছবি। পুলিশের সাথে কথোপকথন। মোবাইলে ধারণ করা।>

আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন বলেন, আমরা এর আগে ইয়াবা পাচারকারীদের যেসব চালান আটক করেছি সেগুলো মূল পায়ুপথে বা পাকস্থলিতে করে পাচার করার চেষ্টা হয়েছিল। এবারের চালানটি সে হিসেবে অভিনব। কোমরে বিশেষ বেল্টে করে সে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা নিয়ে এসেছিল। বেল্টটি দেখলে মনে হয় এটি কোনো ব্যাক পেইন জাতীয় সমস্যার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছে।

উখিয়ার পালংখালীর বাসিন্দা জসিম মূলত বাহকের কাজ করছিলো। জিজ্ঞাসাবাদে জসিম জানায়, জনৈক মোবিনের মাধ্যমে সুলতান আহমদ প্রকাশ দুলাভাই নামের এক রোহিঙ্গার সাথে তার পরিচয় হয়। অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তিকে বিমানবন্দর রেল স্টেশনে এই ইয়াবা পৌঁছে দেয়া পর্যন্তই ছিলো তার মিশন।

এ ঘটনায় বিমানবন্দর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত এক বছরে বিমানবন্দর থেকে প্রায় এক লাখ পিস ইয়াবা আটক করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।









Leave a reply