প্রশ্নপত্রে ধর্মীয় উসকানির অভিযোগে রাবি’র ২ শিক্ষকের শাস্তি


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে ধর্মীয় উসকানি দেয়ার ঘটনায় চারুকলা অনুষদের ডিন মোস্তাফিজুর রহমানকে ১০ বছরের জন্য সকল পরীক্ষা কার্যক্রম থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। সেই সাথে প্রশ্ন প্রণয়নকারী শিক্ষক জিল্লুর রহমানের পদোন্নতি  ৫ বছরের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সিন্ডিকেট সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার কয়েকটি প্রশ্ন নিয়ে বিতর্ক উঠেছিল। সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারীদের অনেকে বলছেন, প্রশ্ন করার ধরনে সাম্প্রদায়িক মানসিকতা ফুটে উঠেছে।

গত ২৫ অক্টোবর অনুষ্ঠিত রাবি’র চারুকলা অনুষদের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্রে ৮০টি প্রশ্ন ছিল। এর মধ্যে দুটি প্রশ্ন নিয়ে আপত্তি উঠে। প্রশ্নপত্রের ৪১ নম্বর ক্রমিকে ছিল- ‘মুসলমান রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও বৌদ্ধধর্মাবলম্বীরা সশস্ত্র হামলা চালায় কত তারিখে?’

৭৬ নম্বর ক্রমিকের প্রশ্নটি ছিল- ‘পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ ধর্মগ্রন্থের নাম কী?’ উত্তর দেয়ার জন্য চারটি অপশন ছিল যথাক্রমে- (ক) পবিত্র কোরআন শরীফ (খ) পবিত্র বাইবেল (গ) পবিত্র ইঞ্জিল (ঘ) গীতা।

এছাড়া আরেকটি প্রশ্ন ছিল, ‘উজবুক’ শব্দের অর্থ কী? উত্তরের জন্য একটি অপশন ছিলো উজবেকিস্তানের বাসিন্দা।

প্রশ্ন করার ক্ষেত্রে সাম্প্রদায়িক দৃষ্টিকোণ বেছে নেয়ায় এবং অপ্রাসঙ্গিক প্রশ্ন করায় সেসময় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সমালোচনা হয়েছিল।

এক পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. এম আব্দুস সোবহান বলেছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয় উন্মুক্ত জায়গা, মুক্তচিন্তার জায়গা। সেখানে ধর্ম নিয়ে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছড়ানো কখনোই সহ্য করা হবে না।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply