কোনো দল নির্বাচনে না আসলে আমাদের কিছু করার নেই: প্রধানমন্ত্রী


গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় নির্বাচনে আসা প্রত্যেকটা দলেরই কর্তব্য, কোনো দল নির্বাচনের না আসলে সেটা তাদের নিজস্ব সিদ্ধান্ত, সেখানে আমাদের কিছু করণীয় নেই। এমন মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশে আগাম নির্বাচনের কোনো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। বলেছেন, খালেদা জিয়ার তার কৃতর্কমের জন্য উচিত দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চাওয়া

কম্বোডিয়া সফর শেষে এর বিস্তারিত জনগণের সামনে তুলে ধরতে গণভবনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের এমন কোনো দৈনদশা হয়নি যে আগাম নির্বাচন দিতে হবে। যথাসময়ে নির্বাচনে হবে। যারা অংশ নেয়ার অংশ নেবে।

দুর্নীতি করে সৌদি আরবে পাকিস্তান ও বাংলাদেশের সাবেক দুই প্রধানমন্ত্রীর পাচার করার অর্থের সন্ধান পাওয়া প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সময় এলে মানুষকে বঞ্চিত করে পাচার করা অর্থ ফেরত আনা হবে। দোষীদের বিচারের ব্যবস্থা অবশ্যই করা হবে।

মুসলিম বিশ্বের অধিকার রক্ষায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, জেরুজালেমকে এক তরফাভাবে ইসরায়েলের রাজধানী ঘোষণা করা মেনে নেয়া যায় না।

রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে প্রধানমন্ত্রী জানান, মানবিক দিক বিবেচনা করে সরকার আপাতত মিয়ানমার থেকে বিতাড়িত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিলেও তাদের ফেরত নিতে হবে দেশটির।

বিএনপিকে হুঁশিয়ার করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনমুখী না হয়ে আগের মতো সহিংসতার চিন্তা করলে মানুষই তা প্রতিরোধ করবে।

কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেনের আমন্ত্রণে ৩ ডিসেম্বর দেশটির রাজধানী নমপেনে যান প্রধানমন্ত্রী। তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে মঙ্গলবার বিকেলে দেশে ফেরেন শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর এই সফরে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্প্রসারণের পাশাপাশি পর্যটন, কৃষি, আইসিটি ও কারিগরি শিক্ষাসহ একটি চুক্তি ও ৯টি সমঝোতা স্মারক সই হয়।

 

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply