বিয়ে করে কারাগারে বর!

|

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর:

বাল্য বিবাহের অপরাধে মাদারীপুরের শিবচরে কিশোর বরকে এক মাসের আটকাদেশ দিয়ে কিশোর সংশোধনাগারে পাঠিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় বরের বাবাকে আর্থিক জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, জেলার শিবচর উপজেলার কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের দোতারা গ্রামের এক কৃষকের ছেলের (১৭) সাথে পাশ্ববর্তী কুতুবপুর ইউনিয়নের মাদবরকান্দি গ্রামের আরেক কৃষকের মেয়ের (১৫) প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। প্রেমের সর্ম্পকের সূত্র ধরে ওই কিশোর কিশোরী পরিবারের কাউকে না জানিয়ে গত ২৫ আগস্ট আদালতে গিয়ে বিয়ে করেন। বিয়ের পর ওই কিশোর নববধূকে নিয়ে নিজ বাড়িতে এসে বসবাস শুরু করেছিল।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার বিকেলে শিবচর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল নোমানের নের্তৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত ওই কিশোরের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে বর ও বরের বাবাকে আটক করে। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত কিশোর ওই বরকে বাল্য বিবাহ নিরোধ আইন-২০১৭ মোতাবেক এক মাসের আটকাদেশ দিয়ে কিশোর সংশোধনাগারে প্রেরণ করেন। ছেলে মেয়ে উভয়ই প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত আলাদা বসবাসের ব্যবস্থা করার শর্তে মুচলেকা রেখে বরের বাবাকে ৫ হাজার টাকা আর্থিক জরিমানা করে ছেড়ে দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় ওই কিশোরীকে তার মায়ের হেফাজতে কিশোরীর বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। অভিযানকালে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হামিদা খানম ও শিবচর থানা পুলিশের টিম উপস্থিত ছিল।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল নোমান বলেন, যেহুতু দুজনেই অপ্রাপ্ত বয়স্ক তাই কিশোরকে সংশোধনাগারে পাঠানো হয়েছে। আর কিশোরীকে তার মায়ের জিম্মায় বাড়ি পাঠানো হয়েছে। প্রাপ্ত বয়স্ক হলেই তারা সংসার শুরু করতে পারবে।









Leave a reply