স্কুলছাত্রকে কুপিয়ে আহত করে বাসের নিচে ফেলে হত্যা

|

রংপুর নগরীর টেক্সটাইল মোড়ে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রকে কুপিয়ে আহত করার পর বাসের নিচে ফেলে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এঘটনায় শুক্রবার দুপুরে কোতোয়ালী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে শিশুটির বাবা। তবে ঘটনার সাথে জড়িত কাউকেই এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশ ও পরিবারের সদস্যরা জানায়, সপ্তাহ দেড়েক আগে নগরীর সাতগারা মিস্ত্রিপাড়া এলাকার অটোচালক মোহনের কাছ থেকে পাচশ টাকা ছিনিয়ে নেয় প্রতিবেশী মোজাফফরসহ কয়েকজন যুবক। মোহন বিষয়টি মোজাফফরের পরিবারকে জানালে ক্ষিপ্ত হয়ে গত বুধবার সন্ধ্যায় মোহনের বাড়িতে দলবল নিয়ে হামলা করে মোজাফফর। বিষয়টি মিমাংসার জন্য স্থানীয়দের নিয়ে মোহন ও মোজাফফরের পরিবারের লোকজন বৃহস্পতিবার রাতে টেক্সটাইল মোড়ে বৈঠকে বসে। মিমাংসা না হওয়ায় সেখান থেকে বাড়িতে ফেরার পথে মোহনের ছোট ভাই স্থানীয় পাবলিক স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র রশীদের উপর হামলা চালায় মোজাফফর ও তার লোকজন। এসময় রশীদকে ধাক্কা দিয়ে মহাসড়কে ফেলে দিলে চলন্ত বাসের চাকায় পিষ্ট হয় রশীদ। গুরুতর আহত রশীদকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা পর আজ ভোরে সোয়া ৪ টায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তার।









Leave a reply