রোহিঙ্গা ইস্যুর সমাধানে বাংলাদেশ-চীন-মিয়ানমার ত্রিপাক্ষিক ওয়ার্কিং কমিটি

|

রোহিঙ্গা ইস্যুর সমাধানে গঠন করা হচ্ছে বাংলাদেশ-চীন-মিয়ানমার ত্রিপাক্ষিক ওয়ার্কিং কমিটি। নিউইয়র্কে চীনের মধ্যস্ততায় বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডক্টর এ কে আব্দুল মোমেন। বৈঠকে রোহিঙ্গা সংকট সমাধান না হলে পুরো অঞ্চলে উগ্রবাদ বাড়তে পারে বলেও আশংকা করেন তিন দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রী।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে আবারো চীনের মধ্যস্থতায় উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এবার জাতিসংঘেরর ৭৪ তম অধিবেশনের ফাকে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার, দু” দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের নিয়ে বৈঠকে বসেন চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রী।

প্রায় ঘন্টা খানেকের বৈঠকে সংকটের টেকসই সমাধানে প্রত্যাবাসন শুরুর তাগিদ ছিল বেইজিংয়ের। সেজন্য এবার ওয়ার্কিং কমিটিতে যুক্ত হলো চীন।

তবে কেবল দিনক্ষণ ঠিক করা নয়, রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ফেরার পরিবেশ নিশ্চিত করার ওপর জোর দিয়েছে ঢাকা। সেটি না হলে কারো জন্যই যে ভাল হবে না, সে বিষয়েও একমত হন নেতারা।

এর আগে চীনের অনানুষ্ঠানিক মধ্যস্থতায় দুদফা ঠিক হয়েছিল প্রত্যাবাসনের দিনক্ষণ, যদিও ফেরেনি একজন রোহিঙ্গাও। এমনকি মিয়ামারের সাথে দ্বিপাক্ষিক অ্যারেঞ্জমেন্ট সই করেও ফল পায়নি বাংলাদেশ।









Leave a reply