‘পেঁয়াজ-টমেটো আদান-প্রদানে সমস্যা না থাকলে ক্রিকেট খেলতে কী সমস্যা?’

|

দীর্ঘ সময় ধরে কোনো দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলছে না ভারত-পাকিস্তান। সবশেষ ২০১২-১৩ মৌসুমে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলেছে তারা আর টেস্ট খেলেছে ২০০৭ সালে। অথচ ক্রিকেটে এ দুই প্রতিবেশীর লড়াই দেখার জন্য মুখিয়ে থাকেন ক্রীড়াপ্রেমীরা। এ নিয়ে কড়া কথা বলেছেন পাকিস্তানের সাবেক স্পিডস্টার শোয়েব আখতার। তার কথা, দুই দেশ পেঁয়াজ-টমেটো আদান-প্রদান করতে পারলে ক্রিকেট খেলতে কী সমস্যা?

বেশ কিছুদিন ধরেই নিজের ইউটিউব চ্যানেলে নানা বিষয়ে কথা বলছেন শোয়েব। এবার ভারত-পাকিস্তান সিরিজ না হওয়ায় ক্ষোভই যেন প্রকাশ করলেন তিনি। শোয়েবের কথা, আমরা একে অপরের সঙ্গে ডেভিস কাপ কিংবা কাবাডি খেলতে পারি তাহলে ক্রিকেটে সমস্যা কোথায়? বুঝলাম ভারত পাকিস্তানে আসবে না, পাকিস্তানও ভারতে যাবে না কিন্তু আমরা তো এশিয়া কাপ ও চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নিরপেক্ষ মাঠে মুখোমুখি হচ্ছি। দ্বিপাক্ষিক সিরিজেও কি এমন করতে পারি না?

সম্প্রতি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফরের কথা উল্লেখ করে শোয়েব বলেন, পাকিস্তান ভ্রমণের জন্য নিরাপদ জায়গা। ভারতের কাবাডি দল এসেছে। বাংলাদেশ টেস্ট খেলে গেছে। এরপরও যদি সমস্যা থাকলে তাহলে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলার প্রস্তাব করছি। তবে পাকিস্তান আতিথেয়তা দেওয়ায় বিশ্বের অন্যতম সেরা। ভারত তা ভালোমতোই জানে। বীরেন্দর শেবাগ, সৌরভ গাঙ্গুলী কিংবা শচীন টেন্ডুলকারকে জিজ্ঞেস করুন, ওদের আমরা খুবই ভালোবাসি।

রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেসের কড়া কথা, আমরা পেঁয়াজ-টমেটো আমদানি-রপ্তানি করতে পারি, হাসিঠাট্টা করতে পারি, তাহলে ক্রিকেট খেলায় কী সমস্যা? ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেট না খেললে সব ধরনের সম্পর্ক ত্যাগ করা উচিত। সম্পর্কচ্ছেদ করতে চাইলে ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ করুন, কাবাডি খেলা বন্ধ করুন, শুধু ক্রিকেট কেন? ক্রিকেটের প্রসঙ্গ উঠলেই বিষয়টি রাজনৈতিক হয়ে যায়। এটা ভীষণ হতাশার।









Leave a reply