ফেসবুকে করোনা সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান দেবে আইইডিসিআর

|

কেউ করোনা আক্রান্ত কিনা এই পরীক্ষা করতে পারে কেবল সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান- আইইডিসিআর। কিন্তু আইইডিসিআর’র হটলাইনে চেষ্টা করে পাওয়া যাচ্ছে এমন অভিযোগ করেছেন অনেকে। এ সংক্রান্ত কোনো ঘাটতি আছে কিনা জানতে চাইলে, সংস্থাটির পরিচালক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, আমাদের ঘাটতি নেই। তবে, মানুষের অভিযোগ আমলে নিয়ে ফেসবুক পেইজে করোনা সংক্রান্ত জিজ্ঞাসার সমাধান দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছি আমরা।

বিবিসি বাংলাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আগে আমাদের ফোন ছিল ৪টি। যখন কলের সংখ্যা বেড়েছে তখন বেড়ে ৮টি এবং পরে পর্যায়ক্রমে ১৭টি ফোন এখানে কাজ করে। এছাড়া, স্বাস্থ্য অধিদফতরের ‘স্বাস্থ্য বাতায়ন’ এখানে যুক্ত হয়েছে। ফলে আরও একটি নতুন নম্বর ৩৩৩ যোগ হয়েছে। আমরা সব মিলিয়ে আমাদের এই সার্ভিসটা দেয়ার চেষ্টা করছি। এখানে লোকবলের ঘাটতির বিষয়টি থাকে। আমরা চেষ্টা করবো এটাকে যেন আরও সহজ করা যায়।

তিনি জানান, ফেসবুকের মাধ্যমে মেসেজ দিয়ে সমাধান করা যায় কিনা সেটা আমরা চিন্তা করছি। যারা ফোন কল করে আমাদের পাচ্ছেন না, তারা যদি ফেসবুকে আমাদের মেসেজ করেন এবং ফোন নম্বরসহ যদি আমাদের ইনবক্স করেন, তাহলে আমরা রেসপন্স করবো। আসলেই অনেকেই আমাদের পাচ্ছেন না। আমরা মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য রক্ষার জন্য ফেসবুক পেইজের ইনবক্সে যোগাযোগ করতে চাই। সেখানে যারা যোগাযোগ করবেন তারা ফোন নম্বর, কী লক্ষণ-উপসর্গ সেসব, কোন দেশ থেকে এসেছেন সেসব লিখবেন। অথবা বিদেশ থেকে আসা কারও সংস্পর্শে এসেছেন কিনা, তাদের নাম, নম্বর, ঠিকানা দিলে আমাদের টিম তাদের সাথে যোগাযোগ করবেন।

অপ্রয়োজনে যোগাযোগ না করার অনুরোধ করে তিনি বলেন, আরেকটা কথা বলতে চাই, আমরা অনেকগুলো ফোন কল পাই যেগুলো না এলেই হয়। তারা অনেকটা সময় ফোন ব্যস্ত রাখেন। আমরা কারো সাথে খারাপ ব্যবহার করতে চাই না বলে তাদের সাথে কথা বলি। জনগণের অংশগ্রহণ যে কতটা গুরুত্বপূর্ণ আমরা এই হটলাইন সার্ভিস দিয়েও বুঝতে পারি।

এসময়, আইইডিসিআর’র ফেসবুক পেইজের ঠিকানাও (Institute of Epidemiology Disease Control & Research – IEDCR) জানান তিনি।









Leave a reply