‘সরকারের উচিত লকডাউনে বৈধ মদের দোকানগুলো খোলা রাখা’

|

“সরকারের উচিত এই সময়ে দেশের সব মদের দোকান খোলা রাখা। পারতপক্ষে যে মদের দোকানগুলির ছাড়পত্র রয়েছে, সন্ধ্যাবেলা করে সেগুলো খোলা রাখাই যায়!”, এমন মন্তব্য করেছেন ঋষি কাপুর। কিন্তু দেশজুড়ে যখন সবাই ব্যস্ত করোনাভাইরাসে তার মাঝে এ কেমন পরামর্শ প্রবীণ বলিউড অভিনেতার? সন্দিহান ছিলেন অনেকেই! আসলে লকডাউনে রাজ্যের সব মদের দোকান বন্ধ থাকায় গত ২৭ মার্চ কেরলে আত্মঘাতী হন এক যুবক। সেই পরিপ্রেক্ষিতে ঋষি কাপুরের এই মন্তব্য।

এক টুইটার বার্তায় ঋষি লিখেছেন, “আমায় ভুল বুঝবেন না! এই কয়েকদিন গৃহবন্দি হয়ে অনেকেই অবসাদ, অনিশ্চয়তায় ভুগছেন। পুলিশ, চিকিৎসক, সাধারণ মানুষ, সবারই তো একটু মুক্তির আস্বাদ প্রয়োজন। চোরাভাবে তো মদ বিক্রি চলছেই।”

পাশাপাশি তিনি এও জানান যে, মদ বিক্রির ফলে সরকারের ঘরে যে বাড়তি রাজস্ব ঢুকবে, তা এই পরিস্থিতিতে করোনা মোকাবিলায় কাজে লাগবে। পরবর্তী টুইটে ঋষি কাপুর লিখেছেন, “হতাশা কখনোই অবসাদের সঙ্গে মিশে যাওয়া কাম্য নয়! তাই আমার মতে, মদ বিক্রির ক্ষেত্রে হিপোক্রিসি না দেখিয়ে সরকারিভাবে তা করাই ভাল।”









Leave a reply