শিয়ালের কামড়ে আহত অর্ধশত, আতঙ্কে রাত জেগে গ্রামবাসীর পাহারা

|

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলায় শিয়ালের কামড়ে নারী ও শিশুসহ অর্ধশত মানুষ আহত হয়েছেন। শনিবার রাতে উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের তাঁজপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে ৩২ জনকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, শনিবার রাতে হঠাৎ করে দুটি শিয়াল গ্রামে ঢুকে পড়ে। এই সময় শিয়াল দুটি গ্রামের নারী-শিশুসহ অর্ধশত মানুষকে কামড়ে আহত করে। পরে আহতদেরকে উদ্ধার করে জেলা সদর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এ সময় স্থানীয়দের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করে। এক পর্যায়ে স্থানীয়রা মিলে দুটি শিয়ালের মধ্যে একটি শিয়াল পিটিয়ে মেরে ফেলে।

আহতদের মধ্যে অধিকাংশরাই নারী ও শিশু। আহতদের মধ্যে ৩২ জনকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এদিকে, শনিবার রাত থেকে শিয়াল আতঙ্কে স্থানীয়রা লাঠি-সোটা নিয়ে রাত জেগে পুরো গ্রাম পাহারা দিয়েছে গ্রামবাসী।

স্থানীয় দূর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল করিম খান সাজু জানান, শিয়াল দুইটি গ্রামের ভেতরে এসে মানুষকে কামড়ে দেয়। সবাইকে দ্রুত হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহত সবাই সুস্থ আছে বলে তিনি জানান।

এই ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. শওকত হোসেন জানান, হাসপাতালে ৩২ জন রোগীকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। আহতদের মধ্যে কয়েকজনকে টিকা দেয়া হয়েছে। বাকিদেরকে জলাতঙ্ক রোগের টিকা দেয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও জানান, শিয়ালের কামড়ে কেউ কম, কেউ বেশি আহত হয়েছেন।

ইউএইচ/









Leave a reply