হল বন্ধ রেখে পরীক্ষা নেয়ায় বিপাকে ঢাবি’র শিক্ষার্থীরা

|

করোনার কারণে প্রায় বছর খানেক হতে চললো পড়ালেখা বন্ধ। সামনে বিসিএস পরীক্ষা। তাই অনার্স-মাস্টার্সসহ বিভিন্ন বর্ষের পরীক্ষা শুরু হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। আবাসিক হল বন্ধ রেখে এই পরীক্ষা নেয়ায় বিপাকে পড়েছেন শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে, শিক্ষার্থী-শিক্ষকদের মতামত নিয়েই পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। অবশ্য হল বন্ধ রাখার যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ। আবাসিক হলগুলো বন্ধ। বাইরে থেকে এসে পরীক্ষার কাজ করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। অনেকে ব্যাগপত্র গুছিয়ে যাচ্ছেন মেসের সন্ধানে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষার হলে বসতে পারলেও হলের বাইরে তাদের জন্য পদে পদে ঝুঁকি বলে মনে করছেন শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা।

ক্যাম্পাসে শিক্ষক ও স্টাফ কোয়ার্টার খোলা থাকলেও আবাসিক হল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত শিক্ষার্থীবান্ধব নয় বলে মনে করেন- কোনো কোনো শিক্ষক। তবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে, বিশেষ পরিস্থিতিতে পরীক্ষা নিতে হচ্ছে। এই পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদেরও সায় আছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে গত কয়েক দশকে আবাসিক হল বন্ধ রেখে একাডেমিক কার্যক্রম চালানোর কোনো নজির নেই।

ইউএইচ/









Leave a reply